শিরোনাম :
টেকনাফে পুলিশের উপর হামলাকরে আসামী ছিনতাই : ইউপি সদস্য আটক ফের অস্ট্রেলিয়াকে হারাল টাইগাররা প্রযোজক রাজের বাসায় র‍্যাবের অভিযান ঘর নদীতে পড়ে যাওয়ার চিন্তায় ঘুমাতে পারছেনা চাকমারকুল ইউপির ৩ গ্রামের মানুষ রামুতে অসহায়দের মানবিক সহায়তা দিয়েছে সুশাসনের জন্য নাগরিক ‘সুজন’ দর্জি দোকানের কর্মচারীথেকে নেতা মনির : ৪ দিনের রিমান্ডে পরীমনির বাসায় অভিযান সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে : র‌্যাব বৌভাতে যাওয়ার সময় বজ্রপাতে ১৭ বরযাত্রীর মৃত্যু প্রসাধনীর আড়ালে চকরিয়া কুরিয়ারে মিলল ৭০ লক্ষ টাকার ইয়াবা, পাচারকারী আটক সুজন জেলা কমিটির পক্ষ থেকে বন্যাদূর্গতদের মাঝে অর্থ সহায়তা প্রদান

৩০০ টাকার পানের বিরা এখন ৩০ টাকা

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৮, ২০২০
  • 169 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

মাহাবুবুর রহমান.
৩০০ টাকা পানের বিরা এখন ৩০ টাকা করোনার প্রভাবে কক্সবাজারের অন্যতম কৃষি উৎপাদিত ফসল পান এখন কৃষকের গলার কাটা হয়ে গেছে। পান বিক্রি করতে না পেরে বরজেই নষ্ট হচ্ছে পান। এতে অন্তত ৫০ কোটি টাকা ক্ষতি হবে বলে জানিয়েছেন কৃষি অধিদপ্তর। মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ি এলাকার পান ব্যবসায়ি আবদুল কাদের বলেন,পান আমাদের পারিবারিক ঐতিহ্যগত ব্যবসা। আমার ৩ টি পান বরজ আছে এখন আমার পান বরজে অন্তত ৩০ জন শ্রমিক কাজ করছে। কিন্তু পান বিক্রি না হওয়ায় তাদের খচর বা বেতন দিতে পারছিনা। ফলে অনেকে কাজ না করে চলে গেছে এতে পান বরজেই নষ্ট হচ্ছে। আমার পান তুলে করবো কি সেই পানতো কোথাও নিতে পারছিনা। স্থানীয় ভাবে আর কত পান বিক্রি হবে আগে যে পানের বিরা আগে ৩০০ টাকা বিক্রি হতো সেটা এখন ৩০ টাকায় বিক্রি করি। সদর উপজেলার খুরুশকুল পাল পাড়া এলাকা হরিপদ পাল বলেন,পানের সব চেয়ে দূর্দিন চলছে। এক মাস আগেও পানের খুব কদর ছিল। আগে আমরা পান উপজেলা গেইট অথবা লিংকরোড়ে নিয়ে গেলেই ঢাকা চট্টগ্রাম থেকে লোকজন এসে কিনে নিত। আবার কিছু স্থানীয় পাইকারী ব্যবসায়ি আছে তারাও কিনে নিত এখন পান বাজারেও নিতে পারছি না। বিক্রিও করতে পারছিনা তাইআমাদের বড় ক্ষতি হচ্ছে। তিনি বলেণ,আগে প্রতি পানের বিরা ৩০০ থেকে ৪০০ টাকা বিক্রিহত এখন সর্বোচ্চ ৫০ টাকায় বিক্রি হয়। মহেশখালীর কয়েকজন পান চাষী বলেন,সাধারণত বৈশাখ মাস আসলে এমনিতেই পানের দাম কম থাকে। এ বিষয়ে মহেশখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জমিরুল ইসলাম বলেন,পান কক্সবাজারের অন্যতম প্রধান একটি কৃষি উপকরণ। আমাদের উপজেলার বেশির ভাগ মানুষ পান ব্যবসার উপর নির্ভরশীল। তাই পান বিক্রি এবং বিপণন বিষয়ে আমরা বেশ কিছু নির্দেশনা দিয়েছি। আর লকডাউন উঠে গেলে পান ব্যবসায়িদের জন্য প্রণোদনার বিষয়ে সরকারের উর্ধতন কতৃপক্ষের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT