শিরোনাম :
আর্ন্তজাতিক পীস এ্যাওয়ার্ড পেলেন কক্সবাজারের ফরিদুল হক নান্নু আর্ন্তজাতিক পীস এ্যাওয়ার্ড পেলেন কক্সবাজারের ফরিদুল আলম নান্নু খুরুশকুলে পৃথক স্থানে আ‘লীগের দু‘গ্রæপের সম্মেলন : দুটি কমিটি ঘোষনা ঈদগাঁওতে উপজেলা প্রশাসনের অভিযান: জরিমানা আদায় কক্সবাজারে ২৪ দেশের সেনা কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণে সেমিনার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেছেন জাপানের রাষ্ট্রদূত বনানী কবরস্থানে শায়িত হলেন সাজেদা চৌধুরী টেকনাফ উপজেলা আ‘লীগের সম্মেলন সম্পন্ন : সভাপতি বশর,সম্পাদক মাহবুব মোর্শেদ দেশে ডেঙ্গুতে মৃত্যু ৩২ জনের মধ্যে ১৫ জনই কক্সবাজারে পেশাদার সাংবাদিকদের মর্যাদা বৃদ্ধিকে কাজ করছে প্রেস কাউন্সিল

১৪ বছরেও শেষ হয়নি পাবলিক লাইব্রেরী নির্মাণ কাজ

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, আগস্ট ৮, ২০২২
  • 76 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

মাহাবুবুর রহমান.
শেষ হয়েও হচ্ছে না শেষ। কক্সবাজার পাবলিক লাইব্রেরী কাম ইনস্টিটিউট যেন বেয়োরিশ লাশে পরিণত হয়েছে। কোন যোগ্য অভিভাবকের অভাবে পাবলিক লাইব্রেরীর কাজ শেষ করা হচ্ছে না বলে মনে করেন কক্সবাজারের সাংস্কৃতিক কর্মীরা। ফলে অনেকটা কোমায় চলে গেছে কক্সবাজারের সংস্কৃতি। তাই দ্রæত কক্সবাজার পাবলিক লাইব্রেরীর বাকি কাজ শেষ করে পরিপূর্ন ভাবে চালু করার দাবী জানান সচেতন মহল।
কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক এড,তাপস রক্ষিত বলেন,বর্তমান সরকারের আমলে কক্সবাজারে অনেক প্রকল্প খুব দ্রæত এবং অল্প সময়ের মধ্যে শেষ হয়েছে। কিন্তু ২০০৮ সাল থেকে শুরু হওয়া কক্সবাজার পাবলিক লাইব্রেরী কাম ইনস্টিটিউট নির্মাণ কাজ প্রকল্প মুখ খুবড়ে পড়ে আছে,এটা খুবই দুঃখ জনক। অনেক চেস্টা তদবির করে বর্তমানে কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে এখন সামান্য কাজ বাকি সেটাও শেষ হচ্ছে না। বলা যেতে পারে শেষ হয়েও হচ্ছে না শেষ। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,এখানে নির্মাণকারী প্রতিষ্টান এবং প্রশাসন কখনো দ্বায় এড়াতে পারে না।
কক্সবাজার সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি সত্যপ্রিয় চৌধুরী দোলন বলেন,কক্সবাজার পাবলিক লাইব্রেরী হচ্ছে এতাদাঞ্চলের সাংস্কৃতি কার্যক্রমের পাদপিঠ। প্রায় ১৪ বছর ধরে পাবলিক লাইব্রেরী বন্ধ থাকায় কক্সবাজারের পুরু সংস্কৃতি এখন কোমায় চলে গেছে। খুব কষ্ট করে কিছু কার্যক্রম চালু থাকলেও তা শুধু মাত্র দিবস নির্ভর। আর আগে যে কয়েকজন সাংস্কৃতিক কর্মী ছিল তারাই এখনো মাঠে আছে নতুন করে কোন সাংস্কৃতিক কর্মী বা সংগঠক উঠে আসেনি। তিনি বলেন,বর্তমানে পাবলিক লাইব্রেরী নির্মাণ কাজ অনেকটা শেষ পর্যায়ে কিন্তু কেন জানি বাকিটা শেষ হচ্ছে না জানিনা। আমাদের একজন যোগ্য অভিভাবকের বড় অভাব। আসলে সত্যি কথা হচ্ছে আমাদের হাতে কিছুই নেই সব কিছু প্রশাসনের হাতে তাই কেউ কিছু বলতে পারছে না। তাদের ইচ্ছা হলে কাজ করে না হলে বন্ধ রাখে।
বিশিষ্ট নাট্য নির্দেশক কক্সবাজার সিটি কলেজের অধ্যাপক স্বপন ভট্টাচার্য্য বলেন,এক সময় ঢাকার পরে সারা দেশের মধ্যে কক্সবাজার ছিল সাংস্কৃতিক কার্যক্রমে পুরু দেশের মধ্যে সব চেয়ে এগিয়ে ছিল, কিন্তু এখন তার কোন হদিস নেই। নাটক তো দূরের কথা অন্যকোন সাংস্কৃতিক কার্যক্রমও এখন হচ্ছে না একমাত্র পাবলিক লাইব্রেরীর কারনে। কক্সবাজারে এখন মঞ্চ বা হল বলতে কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রই শুধু আছে কিন্তু সেটা শহর থেকে দূরে হওয়াতে দর্শক পায় না। আর যেখানে নিয়মিত সাংস্কৃতিক কর্মীদের আড্ডা হয়না সেখানে কোন সংস্কৃতিক চর্চা হওয়ার সুযোগ নেই। আর একটা জিনিস আমি হলফ করে বলতে পারি বর্তমানে সমাজে যে সমস্ত অপকর্ম চলছে,যেমন ইভটিজিং,মাদক,সন্ত্রাস সহ অনেক কিছুই বন্ধ হয়ে যেত যদি ঠিকমত সাংস্কৃতিক কার্যক্রমটাকে চালু রাখা যেত।
কক্সবাজার জেলা খেলাঘরের সভাপতি আবুল কাশেম বাবু বলেন,কক্সবাজারে অনেক বড় বড় প্রকল্প ২/৩ বছরের মধ্যে চালু হয়ে গেছে কিন্তু ১৪ বছরেই পাবলিক লাইব্রেরীর কাজ শেষ না হওয়াতে মনে হচ্ছে এদেশে সাংস্কৃতিক কার্যক্রমের কোন দরকার নেই। তবুও আমাদের মত কিছু সাংস্কৃতিক পাগল আছে যারা এখনো মাঠে আছে। এখন নতুন করে কোন কর্মী পাওয়া যায় না। ফলে নতুন প্রজন্ম এখন ভিন্নপথে ধাবিত হচ্ছে।
কক্সবাজারের প্রতিতযসা শিল্পী রায়হান উদ্দিন বলেন,গান,নাচ,আবৃত্তি শিল্পীদের এখন কেউ চিনেনা। এখন সবাই প্রশাসনের কর্মকর্তা বা সরকারি দলের নেতাদের চিনে। অথচ এক সময় শিল্পীদের মানুষ সম্মান করতো,মর্যাদা দিত এখন তাদের এড়িয়ে চলে অনেকে পাগল বলে। এর মধ্যে কক্সবাজারের সংস্কৃতিক প্রাণ পাবলিক লাইব্রেরীটা বন্ধ থাকায় সব কিছু কবর দেওয়া হয়েছে। তাই দ্রæত পাবলিক লাইব্রেরীর কাজটা শেষ করা দরকার।
এ ব্যাপারে কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক ) জাহিদ ইকবাল বলেন,আমারা জানা মতে পাবলিক লাইব্রেরীর কাজ শেষ পর্যায়ে কিন্তু বাকি কাজটা কি বা কেন শেষ হচ্ছে না সেটা আমি জেনে দ্রæত কাজ শেষ করার জন্য চেস্টা করবো।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT