শিরোনাম :
দেশের বিভিন্ন স্থানে দূর্গা পূজায় হামলা প্রতীমা ভাংচুরের প্রতিবাদে কক্সবাজারে মানববন্ধন বিদেশে যেতে চায় মুহিবুল্লাহ‘র পরিবার পাহাড়তলীতে বেলালের গ্যারেজে আড়ালে চলছে ইয়াবা ব্যবসা কাপ্তাইয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীকে গুলি করে হত্যা মাস্ক পরার বাধ্যবাধকতা আর থাকছে না সৌদিতে বিনা শুল্কে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানীর নির্দেশ দিলেন অতিরিক্ত বানিজ্য সচিব পাহাড়তলীতে গ্যারেজের আড়ালে চলছে ইয়াবা ব্যবসা টেকনাফ সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি ইয়াবা নিয়ে সহযোগি সহ ঢাকায় আটক পাঁচ কেজি আইসসহ টেকনাফ সিন্ডিকেট প্রধান ঢাকায় আটক পেকুয়ায় ত্রিভূজ প্রেমের বলি দুই প্রেমিক-প্রেমিকা

রোহিঙ্গা নারীকে নাগরিকত্ব দেওয়ায় ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, জুন ১৪, ২০২১
  • 493 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

কক্স৭১

রোহিঙ্গা এক নারীকে জাতীয় পরিচয়পত্র ও জন্ম নিবন্ধন সনদ তৈরির কাজে সহায়তার অভিযোগে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) সাবেক কমিশনারসহ পাঁচ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

সোমবার (১৪ জুন) দুদকের চট্টগ্রাম সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে সংস্থাটির উপ-সহকারী পরিচালক মো. শরীফ উদ্দিন বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। দুদকের জনসংযোগ দফতর ঢাকা পোস্টকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

মামলার আসামিরা হলেন- চট্টগ্রামের ৩৪ নং ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার মোহাম্মদ ইসমাইল, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের জন্ম নিবন্ধন সনদ সহকারী সুবৰ্ণ দত্ত, রোহিঙ্গা নাগরিক অহিদা, অহিদার শনাক্তকারী ও কথিত চাচা চট্টগ্রামের বাসিন্দা মো. সিরাজুল ইসলাম এবং রোহিঙ্গা নাগরিক অহিদার বানানো পিতা-মাতা মোহাম্মদ ইসমাইল ও মেহেরজান।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজশে জালিয়াতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার করে ভুয়া পরিচয় ও নাম-ঠিকানা ব্যবহার করে জাতীয়তা সনদপত্র ও জন্ম নিবন্ধন সনদ তৈরি করেন। পরে ওই সনদ দেখিয়ে বাংলাদেশি পাসপোর্ট তৈরি করার চেষ্টা করেন রোহিঙ্গা নাগরিক অহিদা। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, অহিদা ২০১৯ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর কমিশনার মোহাম্মদ ইসমাইল বরাবর আবেদন করে নাগরিক সনদপত্র নেন। একইসঙ্গে ওই বছরের ৭ নভেম্বর অহিদা জন্ম নিবন্ধন সনদ পাওয়ার জন্য পিতা হিসাবে আসামি মো. ইসমাইল ও মাতা হিসাবে মেহেরজানকে দেখানো হয়। দুদকের অনুসন্ধানে জানা যায় তারা অহিদার প্রকৃত পিতা-মাতা নন এবং তারাও মিয়ানমার নাগরিক। বর্তমানে ইসমাইল ও মেহেরজান সৌদি প্রবাসী।
অন্যদিকে জাতীয় পরিচয়পত্র ও জন্ম নিবন্ধন সনদ তৈরিতে সরাসরি কমিশনার ইসমাইল ও সিটি করপোরেশনের সুবর্ণ দত্ত সহায়তা করেছেন বলে দুদকের অনুসন্ধানে প্রমাণিত হয়েছে। মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ৪০৬/৪২০/৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/১০৯ ধারাসহ ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫ (২) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT