শিরোনাম :

রামুর বঙ্গবন্ধু উৎসবে লে. কর্ণেল ফোরকান আহমদ :বঙ্গবন্ধু ছিলেন সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালী

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, জানুয়ারী ১৩, ২০২১
  • 260 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

খালেদ শহীদ, রামু
কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব:) ফোরকান আহমদ বলেছেন, বঙ্গবন্ধু ছিলেন সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালী। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙালী জাতিকে পৃথিবীর বুকে শ্রেষ্ঠ বাঙালী হিসেবে পরিচিত করেছেন। বঙ্গবন্ধু প্রধানমন্ত্রী হিসেবে, রাষ্ট্রপতি হিসেবে, মুক্তিযুদ্ধের সর্বাধিনায়ক হিসেবে আমাদের নেতৃত্ব দিয়ে গেছেন। মহান মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশ বিশে^র বুকে একটা লাল সবুজের পতাকা নিয়ে আমরা এই দেশটা পেয়েছি। বঙ্গবন্ধুর কারণে এই স্বাধীন বাংলাদেশ। আমরা যারা বঙ্গবন্ধুকে, দেশকে বুকে ধারণ করি, আমাদের সকলের দ্বায়িত্ব হবে আমাদের নিজেকে পরিবর্তন করে নেয়া। প্রতিটি ক্ষেত্রে আমাদের নৈতিক পরির্বতন করতে হবে। দক্ষতা, যোগ্যতার মাধ্যমে দেশের প্রতিটি ক্ষেত্র পরিবর্তন করে, আমাদের দেশটাকে ২০৪১ সালের টার্গেটে পৌছাতে হবে। এতে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশ্য পূরণ হবে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন সোনার বাংলা, আমাদের ভবিষ্যৎ বংশধরদেরকে আমরা উপহার দিতে পারবো। মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) রাতে রামু স্টেডিয়ামে বঙ্গবন্ধু উৎসবের দ্বিতীয় দিনের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (কউক) চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব:) ফোরকান আহমদ একথা বলেন।
বঙ্গবন্ধু জন্মশত বার্ষিকী উদযাপন পরিষদ, রামুর আয়োজনে অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু উৎসবের দ্বিতীয় দিনের আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন, প্রবীন আওয়ামীলীগ নেতা গোলাম কবির। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে ‘তোমার জন্ম হয়েছে বলেই আমরা পেয়েছি বাংলাদেশ’ এ শ্লোগানে সোমবার থেকে সাত দিনব্যাপী ‘বঙ্গবন্ধু উৎসব’ শুরু হয়েছে। আলোচনা অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তৃতা করেন, ‘বঙ্গবন্ধু জন্মশত বার্ষিকী উদযাপন পরিষদ, রামুর চেয়ারম্যান কক্সবাজার-৩ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ¦ সাইমুম সরওয়ার কমল।
প্রধান অতিথি কউক চেয়ারম্যান লে. কর্ণেল (অব:) ফোরকান আহমদ বলেন, আমাদেরকে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ দিয়ে গেছেন। বাংলাদেশ দিয়ে গেছেন। আমরা কিছুদিন উলটপালট, ডানেবামে ছিলাম। জাতির পিতার কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এই দেশটা গতি নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। আমরা এই ২০২১ সালে সুবর্ণ জয়ন্তী পালন করবো। এই ২০২১ সালে বাংলাদেশ একটি মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ঠিক করে দিয়েছেন, ২০৪১ সালে বাংলাদেশ একটি উন্নত সমৃদ্ধ দেশ হিসাবে বিশে^র বুকে পরিচয় লাভ করবে।
প্রধানমন্ত্রীর রাজনীতির ধারাকে উল্লেখ করে লে. কর্ণেল (অব:) ফোরকান আহমদ বলেন, আমাদেরকে রাজনৈতিক শুদ্ধাচার, পারিবারিক ভাবে শুদ্ধাচার হতে হবে। শুদ্ধাচারকে জনগণের মাঝে নিয়ে যেতে হবে। আমাদেরকে দূর্ণীতি মুক্ত, স্বজনপ্রীতি মুক্ত হতে হবে। কর্মঠ হতে হবে। ফাঁকিবাজ-ধোঁকাবাজী গুলো ভুলে যেতে হবে। আমাদের সুশৃংখল একটা শক্তিশালি সংগঠন রয়েছে। এই বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে যে ভাবে দেশ স্বাধীন হয়েছে, সেই ভাবেই আমাদের ২০৪১ সালের টার্গেট পৌঁছাতে হবে। এজন্য সকলকে কষ্ট করতে হবে। আমাদের ছাত্রলীগ, যুবলীগ, কৃষকলীগ, তাঁতীলীগসহ সকল সংগঠনগুলোর প্রতি আমাদের অনুরোধ, নিজেদের আগে পরিবর্তন করুন। সঠিক নেতা নির্বাচন করুন, সঠিক নেতার পেঁছনে দৌঁড়ান। তিনি বলেন, আমরা ১৯৭৫ এর কিছু বিপদগামী লোকের কাছে, আমাদের জাতির পিতাকে হারিয়েছি। মনে রাখতে হবে এই দেশে মীর জাফরের অভাব নাই। এদেরকে চিহ্নত করে তাদেরকে শুধরাতে হবে, সর্তক থাকতে হবে। এদের থেকে সাবধান থাকবেন।
রামু উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা সাদ্দাম হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মঙ্গলবার রাতে অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু উৎসবের দ্বিতীয় দিনের আলোচনা সভায় বক্তৃতা করেন, কক্সবাজার জেলা জাতীয় শ্রমীকলীগ সভাপতি জহিরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শফিউল্লাহ আনচারী, কউক সদস্য মাশেকুর রহমান বাবু, কক্সবাজার সদর উপজেলা স্বেচ্ছা সেবকলীগ সভাপতি এড. একরামুল হক, ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফরিদুল আলম, জালালাবাদ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইমরুল হাছান রাশেদ, মক্কা বঙ্গবন্ধু পরিষদ সভাপতি হাবিব উল্লাহ সও:, কক্সবাজার শহর স্বেচ্ছা সেবকলীগ সাধারণ সম্পাদক ওসমান সরওয়ার আলম চৌধুরী, যুবলীগ নেতা নবীউল হক আরকান, কলেজ ছাত্রলীগ নেতা জাহেদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী সহ উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।
রামুতে মুজিব শতবর্ষে ‘বঙ্গবন্ধু উৎসব’ আয়োজনে সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে লে. কর্ণেল ফোরকান আহমদ বলেন, আমরা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে যদি বুকে ধারণ করে থাকি। সেইটা যদি মনে থাকে, আপনারা হুশিয়ার থাকবেন, সাবধান থাকবেন। যদি আমরা সকলেই মিলে সর্তক থাকি, ২০৪১ সালের আগেই বাংলাদেশ একটা উন্নত সমৃদ্ধশালী দেশ হবে। আমি অত্যন্ত খুশী হয়েছি মাননীয় সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমলের নেতৃত্বে আপনারা যারা বঙ্গবন্ধু উৎসব আয়োজন করেছেন। আপনাদের সকলকে অন্তরের অন্তস্থল থেকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।
আলোচনা সভার পরে নাট্যকর্মী তাপস মল্লিকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে কবিতা আবৃত্তি করেন, মাস্টার মোহাম্মদ আলম, চিকু বড়ুয়া, অনন্দ্রিলা বড়ুয়া রিয়া। একক সংগীত পরিবেশন করেন, প্রেরণা বড়ুয়া স্বস্তি, রবিউল হাসান, জয়শ্রী বড়ুয়া, আহাম্মদ কবীর, অসীম বড়ুয়া, তালেব মাহমুদ। দলীয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেয়, কক্সবাজারের ভারুয়াখালীর ‘কক্স বিকে শিল্পী ফোরাম’, রামুর জোয়ারিয়ানালার ‘ত্রিদীব খেলাঘর আসর’ এবং নাটক ‘ভুলের পরিণাম’ মঞ্চায়ন করে, রামুর ‘দূর্জয় গণ নাটক দল’। এ ছাড়াও রাতে বঙ্গবন্ধু উৎসব মঞ্চের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন, স্থানীয়শিল্পীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT