শিরোনাম :

রামুতে জমি দখল করে সরকারি কর্মচারীদের দোকান : নেপথ্যে মোটা অংকের বানিজ্য

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, জুন ১২, ২০২১
  • 149 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে
রামু প্রতিনিধি
রামু উপজেলা পরিষদের সৌন্দর্য বিনষ্ট করে
সরকারী নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে সরকারী জায়গায় রামু উপজেলার সরকারী কর্মচারীদের দেওয়া হচ্ছে দোকান বরাদ্দ। সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখা যায় রামু উপজেলা পরিষদের ভিতরে মেইন রোডের পাশে পল্লী ভবন ও সাব-রেজিস্ট্রি অফিসের সামনে পুকুর ভরাট করে অপরিকল্পিত ভাবে সরকারি নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করে সরকারী কর্মচারীদের দোকান বরাদ্দ দেয় রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমা,পুকুর ভরাট করে বরাদ্দ পাওয়া দোকান নির্মাণ করছে উপজেলা পরিষদের কয়েক জন কর্মচারীরা। এই নিয়ে রামুতে চলছে নানা সমালোচনা, নাম না প্রকাশে করে সরকারি কয়েকজন কর্মকর্তা জানান উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে পত্রিকায় সার্কুলেশন দিয়ে উপজেলা পরিষদে রেজুলেশন করে বরাদ্দ দেওয়ার নিয়ম থাকলেও তা মানছেন না উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, সরকারি কর্মচারীদের কিভাবে গোপনে দোকান বরাদ্দ দে।পল্লী ভবন এর কয়েকজন কর্মকর্তা জানান দোকান বরাদ্দ দেওয়া জায়গায় হল পল্লী ভবনের, কিন্তুু একক ক্ষমতার বলে আমাদের জায়গায় অন্যায় ভাবে দোকান বরাদ্দ দিয়েছে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। আওয়ামীলীগের কয়েকজন নেতা জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রতিটি দোকান বরাদ্দ দেওয়ার জন্য বিভিন্ন জন থেকে ৪ থেকে ৫ লক্ষ টাকা গোপনে এইসব দোকান বরাদ্দ দিয়েছে, সরজমিন তদন্ত পূর্বক জড়িত দের বিরুদ্ধে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য কক্সবাজার জেলা প্রশাসকসহ
উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানান
বিভিন্ন রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সুশীল সমাজ,জনপ্রতিনিধি ও এলাকাবাসী।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT