মাতারবাড়ির ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের সাথে দেওয়া ওয়াদা রক্ষা করেনি প্রশাসনঃ সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগীরা

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, জুন ২৯, ২০১৯
  • 143 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে
????????????????????????????????????

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
কক্সবাজারের মহেশখালীর কয়লা বিদ্যূৎ প্রকল্পের কারনে মাতারবাড়ি ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্থ মানুষজনের অবস্থা দিন দিন নাজুল হয়ে উঠছে। এই অবস্থা চলতে থাকলে উক্ত ইউনিয়নের কোন মানুষ থাকতে পারবে না বলে জানান ভুক্তভোগীরা। একই সাথে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষজনের সাথে জেলা প্রশাসনের করা কোন ওয়াদা ৩ বছরেও বাস্তবায়ন হয়নি বলে জানান তারা।
ভুক্তভোগীরা জানান, প্রশাসন বলেছিল,জমির ন্যায্যমূল্য দেয়া হবে, ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিটি মানুষকে ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে, পূণর্বাসন করা হবে, মাতারবাড়ির কেউ বেকার থাকবে না, সবাইকে প্রকল্পে কাজ দেয়া হবে, নানারকম প্রশিক্ষণ দিয়ে বিকল্প কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দেয়া হবে। এই সব প্রতিশ্রুতির কোন বাস্তবরূপ আমরা দেখতে পাচ্ছি না। মাতারবাড়ির মানুষ আজ মানবেতরভাবে কোন রকমে বেঁচে আছে। তাই মাতারবাড়ির মানুষ আজ অসহায় ও ক্ষুব্ধ। এর আগেও আমাদের ন্যায্য দাবীগুলো নানানভাবে কর্তৃপক্ষের কাছে তুলে ধরেছি। জানানোর চেষ্টা করেছি। কিন্তু পাঁচ বছর পেরিয়ে গেলেও আজো তা বাস্তবায়ন হয়নি।
শনিবার (২৯ জুন) কক্সবাজারে এক সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেছেন মাতারবাড়ির ক্ষতিগ্রস্ত বাস্তুহারা লোকজন।
জনসুরক্ষা মঞ্চ কক্সবাজারের সভাপতি অ্যাডভোকেট সাকী -এ কাউছারে সভাপতিত্ব ও ফোরামের সাধারণ সম্পাদক ইমাম খাইরের সঞ্চালনায় এতে উপস্থিত ছিলেন -সহ-সভাপতি মো. শাহাব উদ্দিন, আদহাম বিন ইব্রাহিম, যুগ্ম সম্পাদক মু. হামেদ হোছাইন মেম্বার, সহদপ্তর সম্পাদক এম.বশির উল্লাহ। ক্ষতিগ্রস্তদের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন- নূর মোহাম্মদ, আব্দুল জব্বার, মুন্নি দাশ, তসমিনা সোলতানা নিশু প্রমুখ।
সংবাদ সম্মেলনে মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্পের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত জনগোষ্ঠীর দুঃখ-দুর্দশার কথা তুলেন। একই সাথে তাদের ন্যায্য দাবি আদায়ের আকুতি জানান তারা।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT