মহেশখালীর সন্ত্রাসী নুরুল হক ঢাকায় ইয়াবা সহ প্রেফতার

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, আগস্ট ১৯, ২০১৯
  • 94 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

কক্স৭১ রিপোর্ট
কক্সবাজারের মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালী ইউনিয়নের ফকিরাঘোনা এলাকার কুখ্যাত সন্ত্রাসী ও ইয়াবা ব্যবসায়ি নুরুল হক ঢাকায় ইয়াবা সহ গ্রেফতার হয়েছে সে স্থানীয় মৃত কাশেম আলীর পুত্র। জানা গেছে চলতি মাসের ৯ আগষ্ট ঢাকা পল্টন থানাধীন পুরাতন পল্টনস্থ মনার খাবার দোকান এলাকা থেকে ৪০০ পিস ইয়াবা সহ আটক করে পল্টন থানা পুলিশ। পল্টন থানার এএসআই মোঃ সহিদুল আলম জানান ৯ আগষ্ট রাত ৮ টার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ইয়াবা বিক্রির জন্য অপেক্ষারত অবস্থায় আসামী নুরুল হককে হাতেনাতে আটক করা হয়। বর্তমানে মামলা দিয়ে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। তার কাছ থেকে আরো বেশ কিছু তথ্য পাওয়া গেছে সেটাও আমরা তদন্ত করছি। এদিকে মহেশখালীতে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে নুরুল হক একজন কুখ্যাত সন্ত্রাসী সে ২০০৭ সালে র‌্যাবের দায়ের করা একটি অস্ত্র মামলার প্রধান আসামী। ১৬/২/২০০৭ সালে মহেশখালী থানায় দায়ের হওয়া মামলা নাম্বার১৭/৪৯ এর তথ্য মতে নুরুল হকের দেওয়া অস্ত্র র‌্যাবের সোর্সের কাছে বিক্রি করতে গিয়ে ধরা পড়া আসামীদের ছিনিয়ে নিতে র‌্যাবের উপর হামলা করে। তার গুলিতেই নিহত হয় আরেক অস্ত্র ব্যবসায়ি শাহ আলম। এছাড়া তার নামে আরো বেশ কয়েকটি মামলা আছে বলে জানাগেছে।
এছাড়া নুরুল হকের রয়েছে নিজস্ব বাহিনি তারা প্রায় সময় উপকূলের চিংড়ীঘের দখল,মাছ ও লবণ লুট করে। এছাড়া সাগর পথে বড় বড় ইয়াবার চালান আনা নেওয়া করে। আগে কোন অর্থসম্পদ না থাকলেও বর্তমানে নুরুল হক কক্সবাজার শহরে জমি সহ রয়েছে মহেশখালীতে কয়েক কোটি টাকার সম্পদ। তার স্ত্রী ব্যাংক একান্টেও রয়েছে বিপুল টাকা। এছাড়া স্পীবোট সহ রয়েছে বিপুল সম্পদ। এলাকাবাসীর দাবী নুরুল হক প্রায় সময় কয়েকজন আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতাদের আশপাশে থাকে এবং তাদের ছত্রছায়ায় নানান অপরাধ কর্মকান্ড করে। এলাকার সচেতন মহলের দাবী নুরুল হকের অন্যতম পৃষ্টপোষক সহ আরো যারা তার সাথে অবৈধ কাজে সহযোগি তাদেরও দ্রুত আইনের আওতায় আনা গেলে দ্বীপ থেকে ইয়াবার ভয়াল থাবা অনেকটা কমে যাবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT