বিতর্কিত ২য় বিভাগ ফুটবল লীগ বাতিল করতে হবে

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, জানুয়ারী ১, ২০২০
  • 127 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে
?

কক্সঃ৭১
কক্সবাজার ফুটবল এসোসিয়েশন (ডিএফএ) মেয়াদের শেষ সময়ে এসে শুধু মাত্র ভোটার বাড়াতে চরম অনিয়ম দূর্নীতির আশ্রয় নিয়েছে,বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফের নির্দেশ না মেনে গুপনিয় ভাবে দ্বিতীয় বিভাগ ফুটবল লীগের নামে তামাশা শুরু করেছে। দ্রুত দ্বিতীয় বিভাগ ফুটবল লীগ বাতিল এবং ব্যার্থ লীগ কমিটি বাতিল করার দাবী জানিয়েছে ডিএফএর নিবন্ধিত ১৩ টি ফুটবল লীগের প্রতিনিধিরা। অন্যথায় আসন্ন জেলা ফুটবল লীগে অংশনেবেনা বলে জানান তারা। ১ জানুয়ারী বিকালে শহরের একটি রেষ্টুরেন্টে করা সংবাদ সম্মেলনে জেলা ডিএফএর ১৬ টি নিবন্ধিত দলের মধ্যে ১৩ টি দলের প্রতিনিধিরা দাবী করেন বর্তমান ডিএফএর সভাপতি চরম অনিয়ম দূর্নীতি ও সেচ্ছাচারিতার কারনে জেলার ঐতিহ্যবাহী ফুটবল এখন ধ্বংসের পথে। ৪ বছর মেয়াদের এই কমিটির মাত্র আড়াই মাস মেয়াদ থাকতে কৌশলে ভোটার বাড়াতে না রকম ফন্দি আটছে সভাপতি এবং তার কিছু ইয়াবাবাজ লালিত মাস্তান বাহিনি। ২০১৯ সালের ৮ডিসেম্বর বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ স্বাক্ষরিত পত্র অনুযায়ী কোন রুপ বিজ্ঞপ্তি প্রচার না করে বাফুফেকে না জানিয়ে ২য় বিভাগ ফুটবললীগ করা যাবেনা। বরং আগে প্রথম বিভাগ ফুটবললীগ শেষ করে ২য় বিভাগ ফুটবল আয়োজন করতে হবে। কিন্তু সেই নির্দেশ না মেনে ১০ ডিসেম্বর গোপনিয় ভাবে রামুতে ২য় বিভাগ লীগ আয়োজন করে। পরে খুরুশকুল মাঠে যেনতেন ভাবে কিছু খেলা চালিয়ে সেটাকে লীগ বলে চালিয়ে দিতে চাইছে। এছাড়া ডিএফরে নিবন্ধিত দল টাউন ক্লাবের প্রতিষ্টাতা ওসভাপতি সাবেক ডিএফএ সদস্য খোরশেদ আলম,টেকনাফ খেলোয়াড় সমিতির প্রতিষ্টাতা ও সভাপতি ডিএফএর বর্তমান অর্থ সম্পাদক ফরহাদুজ্জামান এবং কক্স ক্রীড়া সংঘের প্রতিষ্টাতা ও সভাপতি সাবেক ডিএফএ যুগ্ন সম্পাদক সিরাজুদ্দৌলা বিরুদ্ধে অব্যাহত ষড়যন্ত্র করে আসছে তারা ডিএফএ সভাপতির অন্যায় আবদারে সাড়া না দেওয়ার তাদের সদস্যপদ কেড়ে নেওয়ার হুমকি দিচ্ছে। আর নিয়ম গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ডিএফএর সমস্ত উপ কমিটিতে সচিব হবেন সাধারণ সম্পাদক কিন্তু সেই নিয়মও না মেনে সভাপতির পছন্দমত লোকদিয়ে সব অবৈধ কার্যক্রম পরিচালনা করছে। একই সাথে গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ব্যাংক লেনদেন করতে পারবে একমাত্র সভাপতি সম্পাদক ও অর্থ সম্পাদক কিন্তু এখানে সাধারণ সম্পাদক ও অর্থ সম্পাদকের স্বাক্ষর ছাড়া ভুয়া রেজুলেশন করে ৪ লাখ ৮০ হাজার টাকা আত্বসাৎ করেছে। সব মিলিয়ে দ্রুত তথাকথিত ২য় বিভাগ ফুটবললীগ এবং ব্যাথ লীগ কমিটি বাতিল করে সব ধরনের ষড়যন্ত্র বন্ধ না হলে আসন্ন জেলা ফুটবল লীগে অংশ না নেওয়ার ঘোষনা দেন কর্মকর্তারা । এতে উপস্থিত ছিলেন টাউন ক্লাবের খোরশেদ আলম,ন্যাশনাল কক্সের মোঃ করিম উল্লাহ,মালুমঘাট ক্রীড়া সংস্থার মাহাবুবুর রহমান,অলস্টার ফুটবল সংস্থার দেলোয়ার হোসেন,ঢেমুশিয়া ক্রীড়া সংস্থার এড,রফিকুল হাসান,পাহাড়তলী ক্রীড়া পরিষদের ইসমাঈল জাহেদ,রামু ফুটবল একাডেমীর প্রতিনিধি ও ডিএফএর বর্তমান সাধারণ সম্পাদক জ্যোতির্ময় বড়ুয়া মঙ্গল, কক্স ক্রীড়া সংঘের সিরাদ্দৌলা,বাশকাটা খেলোয়াড় সমিতির ছৈয়দ করিম,কোট বাজার খেলোয়াড় সমিতির শফিউল আলম,টেকনাফ খেলোয়াড় সমিতির প্রতিনিধি এবং ডিএফএর বর্তমান অর্থ সম্পাদক ফরহাদুজ্জামান,উখিয়া উপজেলা খেলোয়াড় সমিতির সিরাজুল হক,যুব একাদশ রামুর তরুপ বড়ুয়া।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT