পেকুয়া টৈটংয়ে চাঁদার দাবীতে খতমে কোরআন ও দোয়া মাহফিল পন্ড

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, নভেম্বর ৭, ২০২০
  • 217 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

বার্তা পরিবেশক
পেকুয়া উপজেলার টৈটং বনকানন এলাকায় চাঁদার দাবীতে খতমে কোরআন এবং দোয়া মাহফিল পন্ড করে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। ৬ নভেম্বর সকাল ১০ টায় এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে টৈটং বন কানন এলাকার ফেরদৌসি বেগমের মালিকানাধীন জমিতে একটি দোকান উদ্বোধন উপলক্ষ্যে টৈটং বড়পাড়া জামে মসজিদের ইমামের নেতৃত্বে ১৫ জন হাফেজ সহ খতমে কোরআন এবং দোয়া মাহফিলে আয়োজন করে কিন্তু এতে বাধা দেয় স্থানীয় চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ আবুল বশর,জয়নাল আবেদীন,আমিন প্রকাশ ডাঃ আমিন গং। এ সময় তারা সংঘবন্ধ হয়ে কোরআন মাহফিলে বাধা দেয় এতে মৌলবী এবং হাফেজ সাহেবদের চরম অপমান করে বের করে দেয়। এ সময় সন্ত্রাসী আবুল বশর ফেরদৌসি বেগমের ছেলে তানজীবুল আলমের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা চাঁদাদাবী করে বলে এখানে আমাদের জমি আছে তাই এখনে কোন কোরআন খতম করা যাবে না। আর করতে হলে আমাদের টাকা দিতে হবে। পরে অবশ্য অনেক কষ্ট করে ভিন্ন জায়গায় আমরা খতমে কোরআন ও দোয়া মাহফিল হয়েছে। এ ব্যপারে স্থানীয় সমাজ সেবক ও সর্দার নজির আহামদ বলেন,যে জমিতে দোকান হচ্ছে সেটা মাস্টার শাহ আলম অর্থাৎ ফেরদৌসি বেগমের স্বামীর বাড়ি জমি সেটা শত বছর ধরে তাদের দখলে এখন যারা বাধা দিচ্ছে তারা ভিন্ন কোন ওয়ারিশ থেকে জমি কিনেছে বলে দাবী করে তাদের কোরআন খতমে বাধা দিয়েছে। তিনি বলেন,জমি নিয়ে বিরোধ থাকলে সেটা পরে বসে মিমাংসা করা যেত কিন্তু কোরআন অবমাননা করে এভাবে হাফেজ সাহেবদের বের করে দেওয়া মোটেও উচিত হয়নি। এদিকে আরো বেশ কয়েক জন স্থানীয় মুরব্বী বলেন,জমি নিয়ে বিরোধ বা টাকার জন্য কোরআন খতম বন্ধ করে দেয় এটা প্রথম দেখলাম এটা খুবই অন্যায় হয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT