পেঁয়াজের ঝাঁজ কমেনি, টেকনাফে একদিনে এসেছে ৯০০ টন পেঁয়াজ

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, অক্টোবর ২৫, ২০১৯
  • 256 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

 

আব্দুল্লাহ মনির, টেকনাফ :

মিয়ানমার থেকে কক্সবাজারের টেকনাফ স্থল বন্দর দিয়ে শত শত টন পেয়াঁজ আমদানী হলেও, বাজারে কোন প্রভাব পরেনি। এই বন্দর দিয়ে (২৪ অক্টোবর) বৃহস্পতিবার ৯০০ মেট্রিক টন পেয়াঁজ খালাস করা হয়েছে। এ নিয়ে চলতি মাসের ২৪ দিনে ১৪ হাজার ৬৮৯ দশমিক ৭৬৭ মেট্রিক টন পেয়াঁজ খালাস করা হয়। তবে পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি থাকায় মিয়ানমার থেকে পেয়াঁজ আমদানী করছেন ব্যবসায়ীরা।

টেকনাফ স্থলবন্দরের আমদানিকারকরা জানান, বাজার স্বাভাবিক রাখতে মিয়ানমারে পেঁয়াজ আমদানি করা হচ্ছে। তবে সেদেশে দাম বাড়লে আমদানি কমিয়ে আসার সম্ভবনা রয়েছে।

টেকনাফ শুল্ক ষ্টেশন সূত্রে জানায়, বৃহস্পতিবার (২৪ অক্টোবর) মিয়ানমার থেকে টেকনাফ স্থল বন্দরে আসা ৯০০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ খালাস করা হয়েছে। খালাসকৃত পেয়াঁজ সমূহ ট্রাকভর্তি করে দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠানো হয়।

তবে চলতি মাসে সব মিলিয়ে ১৪ হাজার ৬৮৯ দশমিক ৭৬৭ মেট্রিক টন পেঁয়াজ খালাস করা হয়েছে। এছাড়া গত সেপ্টেম্বর মাসে খালাস হয়েছে ৩ হাজার ৫৭৩ দশমিক ১৪১ মেট্রিক টন পেঁয়াজ। এত বিপুল পরিমান পেয়াঁজ আমদানী হলেও স্থানীয় বাজারে পেঁয়াজের দাম সহনীয় পর্যায়ে আসছেনা বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, টেকনাফ পৌরসভায় বাজারে প্রতি কেজি পেয়াঁজ বড় চাইজের ৮০ থেকে ৯০ টাকা আর ছোট সাইজের ৭৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ সব পেয়াঁজ আড়তদারের কাছ থেকে খুচরা ব্যবসায়ীরা যথাক্রমে ৭৫ ও ৬৫ টাকায় কিনে আনেন।

সরকার সারা দেশে পেয়াজের দাম কমিয়ে আনতে নানা উদ্যোগ নিলেও তা কোন কাজে আসছেনা। বাজারে পেঁয়াজের দাম সহনশীল রাখতে অভিযান পরিচালনা এবং ব্যবসায়ীদের নিয়ে বৈঠকের মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহন জরুরী হয়ে পড়েছে। তবে বাজার মনিটরিং না করলে পেয়াঁজের দাম কমার সম্ভবনা নেই বলে জানায় স্থানীয় ভোক্তারা।

ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট টেকনাফ এর ব্যবস্থাপক জসিম উদ্দীন চৌধুরী বলেন, মিয়ানমার থেকে আমদানিকৃত পেঁয়াজ দ্রুত খালাস হওয়ার জন্য বন্দর কর্তৃপক্ষ যথেষ্ট তদারকি করছে। ব্যবস্থাপনাগত দিক থেকে কোন ধরনের সমস্যা নেই। বিশেষ করে পেঁয়াজ খালাস বিলম্ব না ঘটানোর জন্য প্রতিদিন ছয় শতাধিক শ্রমিক রাতদিন কাজ করে যাচ্ছে।

টেকনাফ স্থল বন্দরের শুল্ক কর্মকর্তা আবছার উদ্দিন বলেন, বৃহস্পতিবার ৯০০ মেট্রিক টন পেঁয়াজ খালাস করা হয়েছে। এ সব পেয়াঁজের প্রয়োজনীয় কার্যক্রম শেষে দেশের বিভিন্ন স্থানে সবরাহ করা হয়। দেশের সংকট মোকাবেলায় ব্যবসায়ীরা পেয়াঁজ আমদানীর দিকে ঝুঁকে পড়েছে। গত সেপ্টেম্বরে রাজস্ব আদায়ে মাসিক লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে হিমশিম খেতে হয়েছে। তবে চলতি মাসেও রাজস্ব আদায় নিয়ে আশংকা করছেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT