পিএমখালীতে ধানি জমি দখল করে সড়ক নির্মানঃ ক্ষতির মুখে শতাধিক কৃষক

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, ডিসেম্বর ৭, ২০১৯
  • 248 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
সদর উপজেলার পিএমখালীর ধাওনখালীতে প্রায় ২০টি পরিবারের ধানের জমিতে সড়ক নির্মান করছে একটি শক্তিশালী চক্র। উন্নয়নের অযুহাতে ফসলী জমিতে সড়ক নির্মান করে সড়কের নামে বাঁধ নির্মান করার কারনে পুরো ৫০ একর জমিতে আগামী মওসুমে চাষাবাদ অনিশ্চিত হয়ে পড়বে বলে দাবি ক্ষতিগ্রস্থদের। ধানের জমির উপর চলমান সড়ক নির্মান বন্ধের আবেদন জানিয়ে সদর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তার বরাবরে আবেদন জানিয়েছেন ক্ষতিগ্রস্থ জমির মালিকগণ।
সদরের ভারুয়াখালী থেকে পিএমখালীর সড়ক যোগাযোগের জন্য ধাওনখালীর লাহেরাজ এলাকার ধানের জমিতে সড়ক নির্মান করে আসছে একটি চক্র। উন্নয়নের দোহাই দিয়ে ভারুয়াখালীর চৌধুরী পাড়া এলাকার ফজলুল হক মেম্বার ও শওকত আলম নামের ব্যক্তির নেতৃত্বে অবৈধ দখলপূর্বক সড়ক নির্মান করে আসছে প্রভাবশালীমহল। ফলে ধাওনখালীর শতাধিক কৃষকের জমি ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। বিশেষ করে ধাওনখালীর হুমায়ুন, সালেহ আহমদ, মোঃ সোহেল, মৌঃ মুবিনুল হক, রাশেদ, রেজাউল করিম, গিয়াস উদ্দিনসহ শতাধিক কৃষক এ সড়কের কারনে চরম ক্ষতির শিকার হচ্ছে। মাঠে ধান এবং লবনের মাঠ দখল করে সড়ক নির্মান করার কারনে চলতি আমন মওসুমে পাকা ধান ঘরে তুলতে পারেনি অনেক কৃষক।এছাড়া আগামি বর্ষা মওসুমে পানি জমে পুরো ৫০ একর জমিতে জলাবদ্ধতা হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় মেম্বার আব্বাস উদ্দিন, সাবেক মেম্বার মমতাজ আহমেদ। ক্ষতিগ্রস্থদের দাবি উন্নয়নের নামে জমি দখল করে সড়ক নির্মান যেন দ্রুত সময়ের মধ্যে বন্ধ করা হোক। ফসলের জমি দখল করে সড়ক নির্মানকারিদের বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসক যেন দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করে সে দাবি জানিয়েছেন ক্ষতির শিকার শতাধিক কৃষক।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT