শিরোনাম :

পাহাড়তলীর সরকারি জমিতে ঘর করছে রোহিঙ্গা সিরাজ

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, মে ২৬, ২০২১
  • 57 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

মাহাবুবুর রহমান
কক্সবাজার শহরের পাহাড়তলী এমনিতেই রোহিঙ্গা উদ্দ্যেশিত এলাকা। এখানে স্থানীয়ের চেয়ে রোহিঙ্গাদের আধিখ্যবেশি। যার ফলশ্রুতিত নতুন করে আসা এক রোহিঙ্গা স্থায়ী ভাবে আলিশান বাড়ি নির্মাণ করছে এই এলাকায়। সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে,মধ্যমপাহাড়তলী ইসলামপুর শাহনুর নগর এলাকার পাশে বিশাল সরকারি জমি দখল করে আলিশান বাড়ি করছে এক রোহিঙ্গা তার নাম সিরাজুল ইসলাম। সে প্রথমে তার বাড়ি চকরিয়েতে জানালেও পরে স্বীকার করে সে প্রকৃত রোহিঙ্গা তার ছেলেমেয়েরা বর্তমানে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আছে। তার নিকট আত্বীয় পাহাড়তলীতে আগে থেকে থাকা রোহিঙ্গা নুর মোহাম্মদ প্রকাশ লম্বা নুর মোহাম্মদের মাধ্যমে এই জমি কিনেছে। জানা গেছে নুর মোহাম্মদ একজন স্বীকৃত জমি দখলকারী,মানবপাচারকারী এবং ক্যাম্পে রোহিঙ্গা জঙ্গীদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষাকারী একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী। সে এর আগেও অসংখ্য রোহিঙ্গাকে পাহাড়তলীতে এনে বাড়িঘর তৈরি করে দিয়ে স্থানীয় বানিয়েছে পরে তাদের অনেককে ভোটার আইডি কার্ডও করে দিয়েছে। যার মাধ্যমে নুর মোহাম্মদ বিপুল টাকা আয় করে। স্থানীয়দের দাবী প্রশাসন সহযোগিতা না করলে এভাবে রোহিঙ্গারা স্থায়ী হয়ে যাবে। তাই দ্রæত এসব রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর দাবী জানান তারা। একই সাথে স্থানীয়দের দাবী কোন স্থানীয় মানুষ ঘর করতে চাইলে পৌরসভা,উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ,পরিবেশ অধিদপ্তর সহ অনেক সংস্থা এসে বাধা দেয়। কিন্তু রোহিঙ্গাদের জন্য কোন বাধা নেই। এতে স্থানীয় মানুষজন দিন দিন অসহায় হয়ে পড়ছে। তাই রোহিঙ্গাদের আশ্রয় পশ্রয় দাতা সহ সবাইকে আইনের আওতায় আনার দাবী জানান তারা।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT