পাহাড়তলীতে রোহিঙ্গাদের পৃষ্টপোষক ছৈয়দ আলমঃবাড়িতে রয়েছে জনপ্রতিনিধিদের সীল প্যাড

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৯
  • 91 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

ককঃ৭১
কক্সবাজার শহরের পাহাড়তলীতে রোহিঙ্গাদের ভুয়া জন্ম সনদ তৈরি,পাসপোর্ট তৈরি,এবং জাতীয়তা সনদ করতে সহায়তা করছে ছৈয়দ আলম। তার বাড়িতে পৌরসভার প্যাড,মেয়র কাউন্সিলারদের সীল এবং বিভিন্ন দপ্তরের ভুয়া কাগজ পত্র আছে বলে জানান স্থানীয়রা। তাই দ্রুত এই ছৈয়দ আলমকে আইনের আওতায় আনার দাবী জানিয়েছে এলাকাবাসী।
সম্প্রতী রোহিঙ্গা বিষয়ে সর্বত্র ব্যাপক আলোচনা হলে পাহাড়তলী এলাকার সর্বস্থরের মানুষ অভিযোগ করেন স্থানীয় আবদু শুক্কুরের ছেয়ে ছৈয়দ আলম এলাকায় রোহিঙ্গাদের সব চেয়ে বেশি সহায়তাকারী হিসাবে পরিচিত। তার বাড়িতে অভিযান চালালে এখনো পৌরসভার মেয়র কাউন্সিলারদের সীল এবং প্যাড পাওয়া যাবে। ছৈয়দ আলম কয়েক হাজার রোহিঙ্গারদের ভুয়া জন্ম সনদ করে দিয়েছেন যে গুলো দিয়ে তারা বিভিন্ন স্কুলে কলেজে ভর্তি হয়ে লেখাপড়া করছে। এবং অনেককে পাসপোর্ট করতে সহায়তা করে বিপুল টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এবং স্থানীয় কারো জাতীয় পরিচয় পত্র নিয়ে রোহিঙ্গাদের ভোটার আইডি কার্ড করতে সহায়তা করেছে ফলে অনেক রোহিঙ্গা ভোটার হওয়ার ও সুযোগ পেয়েছে। তার সাথে কপিতয় জনপ্রতিনিধিও টাকার বিনিময়ে রোহিঙ্গার ভোটার হওয়া এবং জন্ম সনদ দেওয়ার কাজে সহায়তা করে আসছেন।
স্থানীয়দের দাবী রোহিঙ্গা বিরুধী অভিযানে এখন মানুষ অনেকটা সচেতন হচ্ছে। তাই তবে এখনো অনেক রোহিঙ্গাদের পশ্রয় দাতা আছে যারা তাদের পক্ষে কথা বলে এর মধ্যে ছৈয়দ আলম অন্যতম। সে এখনো বিভিন্ন দপ্তরে দালালি করে রোহিঙ্গাদের সহায়তা করছে। আমাদের জানা মতে সে একাই কমপক্ষে ৫০০ রোহিঙ্গাকে ভোটার করিয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT