শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চোরাই পণ্যের ব্যবসা জমজমাট কক্সবাজারের দুই পৌরসভা ও ১৪ ইউপিতে ভোট ২০ সেপ্টেম্বর রামু উপজেলা পরিষদের সৌন্দর্য্য নষ্ট করে দোকান বরাদ্ধের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ ঈদগাঁও বটতলী-ইসলামপুর বাজার সড়কের বেহাল দশা আইসক্রিম বিক্রেতা থেকে কোটিপতি রোহিঙ্গা জালাল : নেপথ্যে ইয়াবা ব্যবসা পৌর কাউন্সিলার জামশেদের স্ত্রী‘র ইন্তেকাল : সকাল ১০ টায় জানাযা উখিয়ায় বিদ্যুৎ পৃষ্টে একজনের মৃত্যু কক্সবাজারে বেড়াতে এসে অতিরিক্ত মদপানে চট্টগ্রাম ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু টেকনাফে নৌকা বিদ্রোহীদের জন্য কঠিন শাস্তি অপেক্ষা করছে; সাবরাং পথসভায় মেয়র মুজিব ৮ হাজার পিস ইয়াবা, যৌন উত্তেজক সিরাপ নগদ টাকা সহ আটক ১

নামের মিল থাকায় আসামি–খুটাখালীতে অপহরণ চেষ্টা মামলায় নিরীহ লোককে হয়রানির অভিযোগ

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, মে ৩, ২০২১
  • 131 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

কক্স৭১
চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের বালু ব্যবসায়ীকে অপহরণ চেষ্টার মামলায় আসামী করে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। সন্তান অপহরণ চেষ্টার ঘটনায় বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় গত ১ মে (নং- ১/৬৮) মামলা দায়ের করেন একই উপজেলাধীন বাইশারী ক্যাঙ্গার বিল এলাকার বাসিন্দা মোঃ রশিদ (৩৫)। এতে আসামী করা হয়েছে আটক দুই রোহিঙ্গাসহ ৭ জনকে।
মামলায় ৫নং আসামী করা হয়েছে চকরিয়া খুটাখালী এলাকার বালু ব্যবসায়ী মৃত বশির আহমদের ছেলে লিটনকে। তাকে ওই ঘটনায় আক্রোশ জনিত কারণে ষড়যন্ত্র মূলক ভাবে ফাঁসানো হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বালু ব্যাবসায়ী এই লিটন এমন ঘটনার সাথে কিছুতেই জড়িত ছিলনা দাবী ব্যবসায়ীদের। নিরীহ বালু ব্যবসায়ী লিটনকে ষড়যন্ত্র করে আসামি করায় স্থানীয় ব্যাবসায়ী সমাজে তীব্র প্রতিক্রিয়া চলছে । এ মামলার বাদী মোঃ রশিদ জানান, “তিনি এবং ভিকটিম তার ছেলে মামলার ৫নং আসামী লিটনকে চিনেন না। আইনশৃঙ্খলার লোকদের কাছে আটক রোহিঙ্গারা লিটন নাম উল্লেখ করেছে। কোন লিটন খুঁজতে গিয়ে খুটাখালীর মানুষ তার পিতার নাম ও ঠিকানা জানিয়েছে।” খুটাখালীতে লিটন নামের আরো অনেক জন আছে জানালে তিনি বলেন “সেখানকার লোকজন পিতার নাম ও ঠিকানা যা জানিয়েছেন সে অনুযায়ী আসামী করা হয়েছে।”
জানা যায় , বাইশারী এলাকায় এ ঘটনা চলাকালীন সময় ২৯ এপ্রিল সন্ধ্যা ৬ টায় লিটন চকরিয়ায় একটি বৈঠকে ছিলেন বলে জানিয়েছেন উপস্থিত কয়েকজন গণমাধ্যম কর্মীসহ একাধিক লোকজন।
এ বিষয়ে চকরিয়া উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক কাউছার উদ্দিন কাছির বলেন, খুটাখালীর বালু ব্যবসায়ী লিটন মামলায় উল্লেখিত ঘটনার সময় আমিসহ একটি জরুরী মিটিংএ ছিলাম। তাকে খুটাখালীর কিছু দালাল চক্র ষড়যন্ত্র মূলক হয়রানির চেষ্টা চালাচ্ছে।
মামলার এজাহার সুত্রে জানা গেছে, উল্লেখিত সময়ে বাদী মোঃ রশিদের ছেলে তারেক রহমান (১৫) বন্য হাতীর কবল থেকে রক্ষা পেতে ক্যাঙ্গারবিলে তাদের ধানক্ষেত পাহারা দিচ্ছিল। এসময় রাস্তা দেখিয়ে দেয়ার অজুহাতে আসামিরা তার হাতমুখ বেঁধে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে যায়। পরদিন ৩০ এপ্রিল সকাল ৫টায় খুটাখালী থেকে সিএনজি যোগে যাত্রাপথে রামু চা-বাগান এলাকায় তারক রহমানের হাতের ইশারা দেখে স্থানীয় লোকজন গতিরোধ করে। এসময় খবর দিলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী লোকজন ঘটনাস্থল থেকে উখিয়া বালুখালী এলাকার ১২নং ক্যাম্পের রোহিঙ্গা নুরুল ইসলামের ছেলে ইয়াসিন (৩০) ও তার ভাই আয়াত উল্লাহ (২৫)কে আটক করে। সে সময় ঘটনাস্থলে বাদি মোঃ রশিদের সাথে উপস্থিত ছিলেন তার মামা খুটাখালী এলাকার বাসিন্দা মৃত আলী আকবরের পুত্র গোলাম আকবর (৪০)।
পরদিন এ ঘটনায় ভিকটিমের পিতা মোঃ রশিদ বাদী হয়ে ৭ জনের নাম ঠিকানা উল্লেখ করে নাইক্ষ্যংছড়ি থাকায় এ মামলাটি দায়ের করেন। অথচ এ মামলার বাদী ৫নং আসামী খুটাখালীর বালু ব্যবসায়ী মোঃ লিটনকে চিনেন না বলে গণমাধ্যমের কাছে স্বীকার করেছেন। নিরীহ লিটনকে মিথ্যা মামলা থেকে তদন্ত করে রেহাই দেয়ার দাবি জানিয়েছেন খুটাখালীর বালু ব্যবসায়ীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT