শিরোনাম :
দেশের বিভিন্ন স্থানে দূর্গা পূজায় হামলা প্রতীমা ভাংচুরের প্রতিবাদে কক্সবাজারে মানববন্ধন বিদেশে যেতে চায় মুহিবুল্লাহ‘র পরিবার পাহাড়তলীতে বেলালের গ্যারেজে আড়ালে চলছে ইয়াবা ব্যবসা কাপ্তাইয়ে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থীকে গুলি করে হত্যা মাস্ক পরার বাধ্যবাধকতা আর থাকছে না সৌদিতে বিনা শুল্কে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানীর নির্দেশ দিলেন অতিরিক্ত বানিজ্য সচিব পাহাড়তলীতে গ্যারেজের আড়ালে চলছে ইয়াবা ব্যবসা টেকনাফ সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি ইয়াবা নিয়ে সহযোগি সহ ঢাকায় আটক পাঁচ কেজি আইসসহ টেকনাফ সিন্ডিকেট প্রধান ঢাকায় আটক পেকুয়ায় ত্রিভূজ প্রেমের বলি দুই প্রেমিক-প্রেমিকা

ঠিকাদারের লেবার সেড করে শহরে ৭ মাস ধরে একটি রাস্তা বন্ধ

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শনিবার, অক্টোবর ৩, ২০২০
  • 818 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে
?

মাহাবুবুর রহমান.
ঠিকাদারের শ্রমিক থাকার জন্য ঘর নির্মাণ করে শহরের একটি গুরুত্বপূর্ন রাস্তা ৭ মাস ধরে বন্ধ রাখা হয়েছে। এতে সেই রাস্তা দিয়ে সহজে চলাচল করতে পারা গাড়ী এখন আর চলাচল করতে পারেনা বরং ঘুরে যেতে হয় ভিন্ন রাস্তা দিয়ে। দীর্ঘদিন ধরে একটি সড়ক বন্ধ রাখায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করে স্থানীয়রা।
শহরের বাহারছড়া এলাকার স্বরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কার্যালয়ের পাশ দিয়ে শৈবাল পয়েন্টের সামনে দিয়ে উঠার রাস্তাটি ৭ মাস ধরে বন্ধ আছে। স্থানীয়দের কাছ থেকে বিভিন্ন সময় অভিযোগ পেয়ে সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে নিপা কনর্স্টাকশন নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্টান তাদের শ্রমিক থাকার জন্য লেবার সেড নির্মাণ করে রাস্তাটি বন্ধ করে রেখেছে। সেখানে কর্মরত আলমগীর নামের এক শ্রমিক জানান,আমরা শহরের নালা রাস্তার কাজ করছি, আমাদের ঠিকাদার এখানে থাকতে দিয়েছে,এখানে আমরা প্রায় শতাধিক শ্রমিক থাকি এছাড়া ঠিকাদারের প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতীও এখানে থাকে। আর আমরা এখানে আছি ৭ মাসের বেশি হবে। এদিকে ঠিকাদারী প্রতিষ্টানের লেবার সেড নির্মাণ করে রাস্তা বন্ধ করায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করে বাহারছড়া এলাকার জসিম উদ্দিন বলেন,ঠিকাদার তার লাভের জন্য কাজ করছে। আমাদের জানা মতে ঠিকাদার লেবার সেড নির্মাণ করবে যেখাবে কোন জনসাধারণের অসুবিধা না হয়,আর পরিবেশের সমস্যা নয়। এখানে শতাধিক শ্রমিক পুরু পরিবেশকে অস্থস্তিকর করে তুলেছে। আরএখানে রাস্তা বন্ধ রেখার কোন আইন নেই বলে জানান তারা। বাহারছড়া এলাকার নাজমা আলম নামের এক গৃহীনি বলেন,আগে সেই রাস্তা দিয়ে আমরা বিকাল বেলা হাটতে যেতাম ছেলেমেয়েদের সেই রাস্তা দিয়ে হাটতে বের করতাম সাইকেল চালাতে কিন্তু এখন কিছুই করতে পারে না। এভারে রাস্তা বন্ধ করে রাখার কোন আইন আছে কিনা আমার জানা নেই তবে এটা আমাদের জন্য খুবই অসুবিধা হয়েছে। এদিকে হোটেল প্রবাল কর্তৃপক্ষদাবী করছে রাস্তার পাশঘেষে লেবার সেড গড়ে উঠায় সেখানে কয়েকটি বাথরুম করা হয়েছেএতে প্রতিনিয়ত মারাতœক দূগর্ন্ধ ছড়ায় এতে আমাদের জন্য খুবই অসুবিধা হচ্ছে। এদিকে স্থানীয় পৌর কাউন্সিলার নুর মোহাম্মদ বলেন,রাস্তার কাজ করার জন্য লেবাররা থাকার ব্যবস্থা করেছে জানি। সে বিষয়ে আমার সাথে কেউ কথা বলেনি,তবে বিষয়টি মেয়র সাহেব এবং সচিব জানবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT