শিরোনাম :

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’রোহিঙ্গা মাদক কারবারী নিহত

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, মে ১৭, ২০২০
  • 47 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

আবদুল্লাহ মনির ,টেকনাফ
কক্সবাজারের টেকনাফে (বিজিবি) সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধের এক রোহিঙ্গা মাদক কারবারি নিহত হয়েছেন। নিহত মাদক কারবারি হল, উখিয়া বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এইচ ব্লকের খায়রুল আমিনের ছেলে মোহাম্মদ সাকের (২২)। বিজিবির দাবি, নিহত ব্যক্তি একজন ইয়াবা কারবারি ছিলেন।১৭ মে রবিবার ভোর রাতে টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের নোয়া পাড়া নাফনদী বেড়িবাঁধ এলাকায় ‘বন্দুকযুদ্ধের’ এ ঘটনা ঘটে।টেকনাফ ২ বিজিবি অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ ফয়সল হাসান খান জানান, গতরাতে ২বিজিবি অধীনস্থ নোয়া পাড়া ক্যাম্পের একটি বিশেষ টহলদল নোয়া পাড়া এলাকায় বেড়িবাঁধের ওপর নিয়মিত কার্যক্রম পরিচালনা করছিল। রবিবার ভোর রাতে টহলদল দূরে ৩-৪ ব্যক্তিকে নাফ নদী পার হয়ে বেড়িবাঁধের উপরে উঠতে দেখে টহলদল দ্রুত এগিয়ে যায় এবং থামানোর জন্য তাদেরকে চ্যালেঞ্জ করে। বিজিবির টহল দলের উপস্থিতি টের পেয়ে সশস্ত্র ইয়াবা কারবারিরা অতর্কিতভাবে গুলি বর্ষণ করে। এসময় দুই বিজিবি সদস্য আহত হয়। এ সময় বিজিবির টহলদল সরকারি সম্পদ নিজেদের জান-মাল রক্ষার স্বার্থে কৌশলগত অবস্থান নিয়ে পাল্টা গুলিবর্ষণ করে। দুই পক্ষের মধ্যে ৪-৫ মিনিট গোলাগুলি হয়। একপর্যায়ে ইয়াবা কারবারিরা গুলি করতে করতে অন্ধকারের সুযোগ নিয়ে দূরে নিকটবর্তী গ্রামে ঢুকে দ্রুত পালিয়ে যাওয়ায় তাদেরকে আটক করা সম্ভব হয়নি। গোলাগুলির শব্দ থামার পর টহল দলের সদস্যরা এলাকা হতে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এক মাদক কারবারিকে উদ্ধার করে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে নেওয়া হলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।বিজিবির ওই কর্মকর্তা জানান, ঘটনাস্থল থেকে ২ লাখ ৪০ হাজার ইয়াবা, ১টি দেশীয় বন্দুক, ২ রাউন্ড তাজা কার্তুজের খালি খোসা, ১টি কিরিচ জব্দ করা হয়। লাশটি কক্সবাজার সদর হাসপাতাল থেকে মর্গে রয়েছে এবং এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলেছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT