শিরোনাম :
স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উপলক্ষ্যে জেলা আনসারও ভিডিপি’র বর্ণাঢ্য পতাকা র‌্যালী অনুষ্ঠিত ইচ্ছার বিরুদ্ধে বিয়ের জন্য চাপ দেওয়াতে ইসলামপুরে তরুনীর আত্মহত্যা ঈদগাঁও রাবার ড্রাম পানি ব্যবস্থাপনা সমবায় সমিতির নিবার্চন সম্পন্ন সড়ক দূর্ঘটনায় মহেশখালী থানার পুলিশ কনস্টেবলের মৃত্যু গণপরিবহনে হাফ ভাড়া চান চট্টগ্রামের শিক্ষার্থীরাও কক্সবাজারে বিমান উড্ডয়নের সময় ধাক্কাতে ২ টি গরুর মৃত্যু : বড় দূর্ঘটনা থেকে রক্ষা চকরিয়ায় ব্যালট পেপার বিনষ্টের অভিযোগে মামলা: প্রিজাইডিং অফিসার কারাগারে খুরুশকুল এলাকায় অভিযানে ১ লাখ পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে র‌্যাব-আটক ১ কস্তুরাঘাট সংলগ্ন বাকঁখালী নদী এখন প্রভাবশালীর ব্যাক্তিগত জমি বদরখালীতে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় নৌকা প্রার্থীর ভাগ্নেকে পিটিয়ে হত্যা

জেলায় বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় উদযাপিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, জুন ৫, ২০১৯
  • 264 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

 

এম.এ আজিজ রাসেল
জেলায় ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্য ও বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে উদযাপিত হচ্ছে পবিত্র ঈদুল ফিতর। বুধবার সকাল সাড়ে ৮ টায় কক্সবাজার কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে অনুষ্ঠিত হয় জেলার প্রধান জামাত। এতে ইমামতি করেন কেন্দ্রিয় জামে মসজিদের খতিব ও চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড আলিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মাহমুদুল হক। জেলা প্রশাসন ও পৌরসভার ব্যবস্থাপনায় অনুষ্ঠিত জামাতে সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, জেলা প্রশাসক মো: কামাল হোসেন, পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন, জেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান, কক্সবাজার প্রেস ক্লাবের সভাপতি মাহবুবর রহমানসহ পদস্থ সরকারি কর্মকর্তাসহ প্রায় ২০ হাজার মানুষ ঈদের নামাজ আদায় করে। এর আগে সকাল ৭ টা থেকেই দলে দলে মুসুল্লিরা ঈদগাহে আসতে শুরু করেন। নামাজের কাতার মাঠ পেরিয়ে বিস্তৃত হয় স্টেডিয়াম গেইট, সদর হাসপাতাল ও পৌর প্রিপ্যার‌্যাটরি স্কুল পর্যন্ত। ঈদ জামাতকে কেন্দ্র করে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা ছিল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর। পরে দেশ ও জাতির সুখ, সমৃদ্ধি ও শান্তি কামনায় মোনাজাত করা হয়। নামাজের পর ধর্মপ্রাণ মুসলিমদের অত্যন্ত আনন্দ ও উৎফুল্লের সঙ্গে ঈদের কোলাকুলি ও শুভেচ্ছা বিনিময় করতে দেখা যায়। অনেকেই ছুটে যায় কবর জিয়ারতের উদ্দেশ্যে। প্রধান ঈদ জামাত ছাড়াও শহরের বায়তুশ শরফ, বদরমোকাম জামে মসজিদ, কলেজ গেইট, লিংক রোড, তারাবনিয়ারছরা, রুমালিয়ারছরা, হাসেমিয়া মাদ্রাসাসহ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পৃথক পৃথক ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়। ঈদ উপলক্ষে নবভাবে সেজেছে বিনোদন স্পট ও হোটেল-মোটেল সমূহ। আগামী ৫ দিন পর্যন্ত সমুদ্র সৈকতসহ ওইসব স্পট দর্শনার্থীদের পদচারণায় সরব থাকবে। সকাল থেকে কচিকাচা শিশুদের আনন্দ কলরবে উৎসবের বর্ণিল আবহ সবখানে ছড়িয়ে পড়ে। ঘরে ঘরে আয়োজন করা হয় নানা খাবারের। দুর-দুরান্ত থেকে আত্মীয়-স্বজন একে অপরের সাথে দীর্ঘদিন পর একসাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নেয়। ঈদে সরকারি শিশু পরিবার, এতিমখানা ও জেলখানায় উন্নত মানের খাবারের আয়োজন করা হয়। কক্সবাজার জেলা কারাগারে প্রতি বছরের মতো এবারও ঈদকে ঘিরে বন্দিদের জন্য বিশেষ আয়োজন করেছে কারা কর্তৃপক্ষ। সকালে ঈদের নামাজ আদায়ের পর বন্দিদের জন্য ঈদ উপলক্ষে বিশেষ খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
এরপর বন্দিদের আত্মীয় যারা দেখা করতে এসেছিলেন কিংবা বিশেষ খাবার নিয়ে এসেছেন তাদের সঙ্গেও দেখা করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে দিনটি ঘিরে। এছাড়া কারাগারেরর মাঠে বন্দিরা নিজ উদ্যাগে খেলাধুলার পাশাপাশি নাচ-গানেরও আয়োজন করেছে। এর আগের দিন ঈদকে কেন্দ্র করে কারাগারে থাকা ৪ হাজার ২৫২ দরিদ্র নারী পুরুষ ও শিশুদের ঈদবস্ত্র বিতরণ করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT