চৌফলদন্ডীতে ভাঙ্গনের মুখে বেঁড়ীবাধ : চরম আতংকে উপকূলবাসী

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, জুন ১৬, ২০১৯
  • 174 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

 

এম আবুহেনা সাগর,ঈদগাঁও
সদরের চৌফলদন্ডীতে বেঁড়ীবাধটি ভাঙ্গনের মুখে পড়েছে। ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় বর্ষার পূর্বেই উপকূলীয় এলাকার লোকজন চরম আতংক গ্রস্ত। বেঁড়ীবাধটি বিলীনের পথে।
সূত্র মতে,চৌফলদন্ডীর ২০/২৫ হাজার মানুষের জীবন রক্ষাকারী বেঁড়ীবাধ সমুদ্রের করাল গ্রাসে পরিণত। বিগত দিনে কয়েকটি ঘূর্নিঝড়ে প্লাবিত হয়েছে বিস্তীর্ণ এলাকা। চৌফলদন্ডী ইউনিয়নের লাল গোদাম হতে আসককাটা পর্যন্ত এ বেঁড়ী বাধের প্রায় সবকটি পয়েন্ট মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ। ভুক্তভোগী লোকজনের মতে,সঠিক সময়ে এসব বাঁধ মেরামত করা না হলে,বর্ষা মৌসুমে দূর্বল বেড়ীবাঁধগুলো বিলীন হয়ে যাবে সাগরে। বিগত বর্ষা মৌসুমে বেঁড়ীবাধ ভাঙ্গনের কারনে ৬ মাস জোয়ার ভাটার পানিতে প্লাবিত হয় এ এলাকার মানুষ।
ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি হাবিব উল্লাহ কক্সবাজার প্রতিদিনকে জানান, এলাকার দরিদ্র জনগোষ্ঠির দুঃখ দূর্দশার কথা চিন্তা করে খুব শ্রীগ্রই এ বিপদজনক বেঁড়ীবাধ সংস্কার করা না হলে আসন্ন বর্ষাতে গত বছরের মত চরম দুর্ভোগ পোহাতে হবে। ফসলী জমি, পুকুরের মাছ,চিংড়ি ঘের,ঘরবাড়ি,আসবাপত্র সহ জনগনের জানমালের ক্ষতিসাধন হবে। তিনি আরো জানান,বেঁড়ীবাধ নির্মানের দাবীতে বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত দরখাস্ত প্রেরনের পরেও বেঁড়ীবাধ নির্মান হচ্ছেনা এখনো।
চৌফলদন্ডীর ইউপি সদস্য উছাচিং রাখাইন জানান,বেঁড়ীবাধ বর্তমানে হুমকির মুখে। বর্ষার আগে যদি সংস্কার না হয়,তাহলে এলাকাবাসী কে মহাবিপদে পড়তে হবে। দ্রত সংস্কারের দাবী।
বর্ষার আগেই স্থায়ীভাবে বেঁড়ীবাধ নতুন করে মেরামত করা দরকার বলে মনে করেন ভোক্ত ভোগী লোকজন।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT