চকরিয়ায় খালে লাশ, আটক-১

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১০, ২০১৯
  • 81 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিনিধি, চকরিয়া :
কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার উপকূলীয় কোরালখালী পাইল্যাপাড়া এলাকায় আবদুল হাকিম ছোটন (২৭) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার পর চিংড়ি ঘেরের খালে লাশ ভাসিয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। নিহত ছোটন উপজেলার শাহারবিল ইউনিয়নের (৯নং ওয়ার্ড) কোরালখালী পাইল্যাপাড়ার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে। এ ঘটনায় রেজাউল করিম (২৫) নামের একজনকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে এ ঘটনা সংঘটিত হয়। নিহত ছোটন চিংড়ি ঘেরে পাহারদারের কাজ করতেন বলে জানা গেছে।
পরিবার সূত্র জানায়, সোমবার রাতে আবদুল হাকিম ছোটনকে তার নিজ বাড়ির অদুরে একটি চিংড়ী প্রজেক্টের কিনারায় সন্ত্রাসীরা দা দিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে হত্যা করেছে। পরে লাশ ঘেরের খালে ভাসিয়ে দিয়ে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।
নিহত ছোটনের এক চাচাতো ভাই জানান, হত্যাকান্ডটি ঘটার আগ পর্যন্ত আবদুল হাকিম ছোটনের সাথে মোবাইলে কথা বলছিলেন। কথা বলার একপর্যায়ে হঠাৎ ছোটনের আর্তচিৎকার শোনা যায়। পরে মোবাইল বন্ধ হয়ে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। এ ঘটনা ছোটনের স্বজনদের জানানো হলে তারা খোঁজাখুঁজি করে ওই এলাকার খালে ভাসমান অবস্থায় তার মরদেহ দেখতে পান। সেখান থেকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।
চকরিয়ায় একের পর এক হত্যাকান্ডের ঘটনার কারণে আইন শৃংখলার মারাত্মক অবনতি হচ্ছে। স্থানীয় কিছু দালালের কারণে পুলিশের ভাবমুর্তি নষ্ঠ হচ্ছে। চকরিয়া কোন স্থানে ঘটনার আগে পুলিশ কর্মকর্তার চার পাশে বসে থাকে এক শ্রেনীর দালাল। এসব দালের মধ্যে ভূমিদস্যু, মিডিয়া, ডাকাত সর্দার, রাজনৈতিক নেতাসহ বিভিন্ন পেশার অর্ধশত দালাল থানা পুলিশের সাথে আঠারমত লেগে থাকার কারণে এসব অপরাধ বৃদ্ধি পাচ্ছে বলে স্থানীয় সচেতন মহল ধারনা করছে।
চকরিয়া থানার ওসি মোঃ হাবিবুর রহমান বলেন, কোরালখালীর সাবেক ইউপি সদস্য জামালের ভাই জয়নাল আবেদীনের মেয়ের সঙ্গে একই এলাকার নুরুল আলমের ছেলে শহীদুল্লাহর বিয়ের কথা ছিল। কিন্তু আগে থেকে সম্পর্ক থাকার কারণে এক সপ্তাহ আগে ছোটনের সঙ্গে ওই মেয়ের বিয়ে হয়ে যায়। এ কারণে শহীদুল্লাহ ক্ষিপ্ত হয়ে এ হত্যাকান্ডটি ঘটাতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
এ ঘটনায় সন্দেহভাজন একজনকে আটক করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
এলাকার সচেতন মহল আরো জানান, চকরিয়া থানাকে দালাল মুক্ত রেখে পুলিশকে স্বাধীন ভাবে কাজ করতে দিলে হত্যাসহ বিভিন্ন অপরাধ কর্মকান্ড অনেকটা কমে আসতে পারে। এ জন্য পুলিশকে দালালদের কাছ থেকে দূরে থেকে পুলিশী দায়িত্ব পালন করার আহবান জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT