শিরোনাম :
উখিয়ার রোহিঙ্গা ছৈয়দ নুরের এনআইডি বাতিল করতে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ আদালতের নির্দেশ অমান্য করে কলাতলীতে হোটেল দখলে নিতে তৎপর প্রতারক চক্র অবাধ তথ্য প্রবাহ দূর্নীতি প্রতিরোধে সহায়ক ভুমিকা রাখতে পারে : সুজনের আলোচনা সভায় বক্তারা ফাঁদে ফেলে ব্ল্যাকমেইল করতেন বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই নারী শিক্ষক ২০ হাজার ইয়াবা সহ আটক ১ জেলার বিভিন্ন মসজিদ মাদ্রাসায় কর্মরত রোহিঙ্গাদের সরকারি সুযোগ সুবিধা বাতিলের দাবীতে আবেদন রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীর হাতে অপহৃত ৩ বাংলাদেশীকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব নাফ নদীতে অজ্ঞাত শিশুর লাশ উদ্ধার ১০ হাজার ইয়াবা সহ আটক ২ আইনজীবি হলেন স্বামী স্ত্রী জসিম উদ্দিন ও মর্জিনা আক্তার

কাস্টমস কর্মকর্তাদের বেপরোয়া আচরণে অতিষ্ট ব্যবসায়িরা

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, অক্টোবর ৪, ২০২০
  • 383 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে
?

কক্স৭১
করোনা সংকটে চরম আর্থিক ক্ষতির সম্মুখিন হওয়া কক্সবাজারের হোটেল মোটেল গুলো ক্ষতি পূষিয়ে উঠতে না পারলেও কাস্টমস কর্মকর্তাদের অতিরিক্ত চাপাচাপিতে আরো ক্ষতির মুখে পড়ছে কক্সবাজারের হোটেল রেষ্টুরেন্ট ব্যবসায়িরা। বর্তমানে কিছুটা পর্যটক আসার শুরুতেই কাস্টমস কর্মকর্তাদের অফিসিয়াল এবং ব্যাক্তিগত ঘুষের টাকার জন্য অতিরিক্ত চাপ দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন অনেক ব্যবসায়ি। বর্তমান নতুন যোগদান করা রাজস্ব কর্মকর্তার অসদাচরণ এবং বাড়তি টাকার চাপে নাজেহাল হচ্ছে ব্যবসায়িরা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শহরের এক রেষ্টুরেন্ট ব্যবসায়ি জানান,দীর্ঘ ৭ মাস ধরে করোনা সংকটের কারনে পূজি হারিয়ে আমরা এখন পথে বসার অবস্থা। এখন কিছুটা ব্যবসা গুছিয়ে আনার চেস্টা করছি সেই মুহুর্তে কাস্টমস অফিস থেকে লোকজন এসে ভ্যাট টেক্সের জন্য চরম নাজেহাল করছে। তবুও সরকারের নিময় মেনে আমরা ভ্যাট টেক্স কিছুটা দিতে চাইছি তবে বর্তমান কাস্টমস রাজস্ব কর্মকর্তা আমাদের খুবই নাজেহাল মূলত আচরণ করছে। এছাড়া তিনি গত বছরের চেয়ে আরো বেশি টেক্সদাবী করছে একই সাথে তাদের অফিস খরচও নাকি বাড়িয়ে দিতে হবে। এদিকে সম্প্রতী শহরেরএকটি হোটেল গিয়ে কাস্টমস কর্মকর্তাদের খাতা টানাটানি এবং হোটেল মালিককে ম্যানেজারকে নাজেহাল করার ঘটনা নিয়ে বেশ ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে ব্যবসায়িরা। তারা অনেকে রাজস্ব কর্মকর্তাদের অনিয়ম দূর্নীতি নিয়ে রাস্তার নামারও চিন্তা করছে বলে জানা গেছে। হোটেল মালিকদের দাবী করোনা সংকটে সময় আমরা বেঁেচ আছি নাকি মরে গেছি কেউ খবর রাখেনি। সরকার সব জায়গায় প্রণোদনা দিলেও হোটেল ব্যবসা খাতে একটি টাকাও আমরা পায়নি বেশির ভাগ কর্মচারীকে বসিয়ে রেখে বেতন দিতে হয়েছে নিজেদের চলতে হয়েছে। এখন কিছুটা ব্যবসা শুরু হওয়ার মুহুর্তে কাস্টমস কর্মকর্তাদের এভাবে হয়রানী খুবই অপমান জনক। আমরা বলেছি ব্যবসা শুরু হউক তাদের প্রাপ্য আরো বেশি করে দেব এখন সেটা মানছেনা বরং তারা আমাদের বলে আমরাও এতদিন কিছু পায়নি এখন বাড়িয়ে দিতে হবে। সরকারি ভ্যাট টেক্স দিলে হবে না তাদের বাড়িয়ে দিতে হবে। আর সব চেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে বর্তমান রাজস্ব কর্মকর্তা রনজিত কুমার দাশ খুবই বিরক্তিকর মানুষ তিনি সবার সাথে খুবই বাজে আচরণ করেন এবং তার সাথে কয়েকজন সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা আছে তারা অনেকে ব্যবসায়িদের সাথে খারাপ আচরণ শুরু করেছে। এদিকে আরেক হোটেল ব্যবসায়ি বলেন,গত সপ্তাহে কাস্টমস কর্মকর্তার জন্য ২ টি রুম রাখতে বলেছিল আমরা প্রায় সময় তাদের ফ্রিতে বা কম মূল্যে রুম দিয়ে থাকি এখন যেহেতু আমাদের অবস্থা সূচনীয় তাই রুমে থাকা গেস্টদের কাছ থেকে টাকা নেওয়াতে সেই কর্মকর্তা ফোন করে আমাদের খারাপ আচরণ করেছে। পরে তার অফিসিয়ার ক্ষমতা দেখানোর জন্য দলবল নিয়ে এসে কাগজ পত্র দেখার নামে তাল বাহানা করছে পরে কিছু দিয়েছি এখন শান্ত হয়ে গেছে। এদিকে রেষ্টুরন্টে মালিকদের দাবী কাস্টমস কর্মকর্তাদের বাড়াবাড়ি না থামালে প্রয়োজনে অনিয়ম দূর্নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলনে যাবে তারা। এ ব্যপারে কক্সবাজার রেষ্টুরেন্ট মালিক সমিতির সভাপতি নঈমুল হক চৌধুরী টুটুল বলেন,সম্প্রতী কাস্টমস নিয়ে বেশ কিছু অভিযোগ করছে আমাদের মালিক সমিতির নেতারা। বিষয়টি আমরা কাস্টমস বিভাগীয় কমিশনারকে অবহিত করেছি তিনি বিষয়টি দেখবেন বলেছেন। তবে একটি কথা মাথায় রাখতে হবে করোনা সংকটে সব চেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হোটেল রেষ্টুরেন্ট মালিকদের ঘুরে দাড়াতে সুযোগ না দিলে তারা কিভাবে ব্যবসা করবে। আর আমাদের দাবী ছিল এখনো অনেক হোটেল রেষ্টুরেন্ট ভ্যাট টেক্সের বাইরে আছে তাদের আওতায় এনে রাজস্ব বাড়ানো হউক। এ ব্যপারে কক্সবাজার কাস্টমস এর রাজস্ব কর্মকর্তা রনজিত কুমার দাশ বলেন,গত বছর ২ মাসে আমাদের রাজস্ব আদায় ছিল ৬ কোটি টাকার উপরে এখন সেটা ২ কোটি টাকা তাই আমরা উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে রাজস্ব আদায়ে কাজ করছি। আর আমি কারো কাছ থেকে বাড়তি টাকা নিয়েছি বা চেয়েছি সেটা প্রমান দিতে বলেন। তাই সব অভিযোগ মিথ্য বলে দাবী করেন তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT