শিরোনাম :

 কঠিন চীবর দানোৎসবে এমপি কমল, সম্প্রীতির রামুর সকল ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন অব্যাহত থাকবে

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, নভেম্বর ৩, ২০১৯
  • 107 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

প্রেস বিজ্ঞপ্তি,
রামু উপজেলার পূর্বরাজারকুল সদ্ধর্মোদ্বয় বৌদ্ধ বিহারে দানোত্তম শুভ কঠিন চীবর দানোৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল বলেছেন, বাংলাদেশে প্রতিটি ধর্মীয় অনুষ্ঠান আজ সামাজিক সম্প্রীতির অনুষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। দেশে সব ধর্মের মানুষের সমান অধিকার প্রতিষ্ঠায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্র পরিচালনার ক্ষেত্রে একটি প্রক্রিয়া অনুসরণ করে সকল মানুষের কল্যাণ, সকল ধর্মের সমান অধিকার ও মর্যাদাকে তিনি রাষ্ট্র পরিচালনার নীতির সাথে গ্রহণ করেছেন। তিনি বলেন, ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সম্প্রীতিতে কক্সবাজারের রামু উপজেলা দেশের অন্যতম উপজেলা। রামুর সম্প্রীতিকে যারা নষ্ট করতে চেয়েছিলো তারা আজ পরাজিত, ধিক্কিত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা রামু-কক্সবাজারকে উন্নয়নে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। এ উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় রাজারকুলও রয়েছে। পূর্ব রাজারকুল সদ্ধর্মোদ্বয় বৌদ্ধ বিহার পরিচালনা কমিটির নেতৃত্বে সম্মিলিত প্রচেষ্টায় বৌদ্ধ বিহারসহ এই এলাকার ব্যাপক উন্নয়ন করা হবে উল্লেখ করে তিনি বিহার উন্নয়নে অনুদানের কথা ঘোষনা দেন। এমপি কমল শেখ হাসিনার সরকার কর্তৃক একুশে পদক ভুষিত, বৌদ্ধদের উপ-সংঘরাজ, প্রয়াত প-িত সত্যপ্রিয় মহাথের’র শান্তি কামনা ও স্মরণ করে বলেন, আমরা রামু-কক্সবাজারবাসী একজন গুণী অভিভাবককে হারালাম। তাঁর জাতীয় অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া অনুষ্ঠানকে সকলে মিলে জাতীয় পর্যায়ে উদযাপনে সকলের আন্তরিক সহযোগীতা কামনা করেন।
গতকাল শনিবার (২ নভেম্বর) তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। টেকনাফ হোয়াইক্যং বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ পঞ্ঞাচারা মহাথেরর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত দানোৎসবে বিশেষ অতিথি ছিলেন, রামু উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সালাহ উদ্দিন, কক্সবাজার জেলা পরিষদের সদস্য নুরুল হক, রাজারকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান, রামু উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা রণধীর বড়–য়া,
এতে প্রধান ধর্মদেশক ছিলেন, রামু উত্তর ফতেখাঁরকুল বিবেকারাম বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ শীলমিত্র থের। ধর্মদেশনা করেন, কক্সবাজার পাহাড়তলী উঃকুশল্ল্যা বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ জ্ঞানপ্রিয় থের, শ্রীকুল মৈত্রী বিহারের অধ্যক্ষ প্রজ্ঞাতিলক ভিক্ষু প্রমুখ। অনুষ্ঠানে পূর্ব রাজারকুল সদ্ধর্মোদ্বয় বৌদ্ধ বিহার পরিচালনা কমিটির উপদেষ্টা জয়সেন বড়–য়া, অনিল চন্দ্র বড়–য়া, মুক্তিযোদ্ধা পরেশ বড়–য়া, মুক্তিযোদ্ধা ফনিন্দ্র বড়–য়া, মুক্তিযোদ্ধা রমেশ বড়–য়া, মুক্তিযোদ্ধা অলক বড়–য়া, সচীন্দ্র বড়–য়া, এড শিরুপন বড়–য়া, বিহার পরিচালনা কমিটির সহ-সভাপতি সুমন বড়–য়া দুলাল, বাদল বড়–য়া, রতন বড়–য়া মংগ, সাধারণ সম্পাদক সুমন বড়–য়া তাতু, সহ- সাধারণ সম্পাদক সৌরভ বড়–য়া শিপন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন।
দিনব্যাপী অনুষ্ঠানে বিশ্বশান্তি কামনায় পবিত্র ত্রিপিটক থেকে সুত্রপাঠ, বুদ্ধপুজা, সকালে ভিক্ষুসংঘের প্রাতঃরাশ, জাতীয় ও ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন, সংঘদান, অষ্টপরিস্কারদান, ধর্মসভা, অতিথি ভোজন, চীবর ও কল্পতরু সহকারে গ্রাম প্রদক্ষিন, দানোত্তম কঠিন চীবর দানসভা, চীবর পরিক্রমা, কঠিন চীবর ও কল্পতরু উৎসর্গ ও বিশ্বমান্তি কামনায় সমবেত প্রার্থনা। অনুষ্ঠানে প্রাজ্ঞ ভিক্ষুসংঘ, শ্রামন ও হাজারো পূন্যার্থী উপস্থিত ছিলেন

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT