শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চোরাই পণ্যের ব্যবসা জমজমাট কক্সবাজারের দুই পৌরসভা ও ১৪ ইউপিতে ভোট ২০ সেপ্টেম্বর রামু উপজেলা পরিষদের সৌন্দর্য্য নষ্ট করে দোকান বরাদ্ধের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ ঈদগাঁও বটতলী-ইসলামপুর বাজার সড়কের বেহাল দশা আইসক্রিম বিক্রেতা থেকে কোটিপতি রোহিঙ্গা জালাল : নেপথ্যে ইয়াবা ব্যবসা পৌর কাউন্সিলার জামশেদের স্ত্রী‘র ইন্তেকাল : সকাল ১০ টায় জানাযা উখিয়ায় বিদ্যুৎ পৃষ্টে একজনের মৃত্যু কক্সবাজারে বেড়াতে এসে অতিরিক্ত মদপানে চট্টগ্রাম ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু টেকনাফে নৌকা বিদ্রোহীদের জন্য কঠিন শাস্তি অপেক্ষা করছে; সাবরাং পথসভায় মেয়র মুজিব ৮ হাজার পিস ইয়াবা, যৌন উত্তেজক সিরাপ নগদ টাকা সহ আটক ১

এলাকায় ফিরছে দীর্ঘদিন আত্মগোপনে থাকা ইয়াবা ব্যবসায়িরা

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, আগস্ট ২৭, ২০২০
  • 926 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

মাহাবুবুর রহমান.
মাদক বিরুধী কঠোর অভিযানে দীর্ঘদিন ধরে আতœগোপনে থাকা ইয়াবা ব্যবসায়িরা আবারো এলাকায় ফিরছে বলে জানা গেছে। ইতি মধ্যে অনেক ইয়াবা ব্যবসায়িকে এলাকায় দেখা গেছে, এছাড়া বিদেশ থেকেও অনেকে আসার জন্য পরিকল্পনা করে বাসাবাড়িতে যোগাযোগ করছে বলে জানা গেছে, এছাড়া বিভিন্ন এলাকায় থাকা খুচরা ইয়াবা ব্যবসায়িরাও এখন অনেকটা প্রকাশ্যে আসছে বলে জানা গেছে। সচেতন মহলের মতে মেজর সিনহা হত্যার ঘটনার পর থেকে থমকে গেছে মাদক বিরুধী অভিযান বিশেষ করে পুলিশের ভুমিকা একেবারেই চোখে পড়ছে না সেই সুযোগে আবারো তৎপর হয়ে উঠেছে ইয়াবা ব্যবসায়িরা।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে টেকনাফ সদরে অসংখ্য ইয়াবা ব্যবসায়ি দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় ছিলনা তারা এখন আবার এলাকায় ফিরছে ইতি মধ্যে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের মেম্বার আবদুল্লাহ,জেল ফেরত মেম্বার ওমর হালিম,ডেইল পাড়া এলাকার গফুরকেএলাকায় দেখা যাচ্ছে এছাড়া গফুরের ছেলে বিদেশে থাকা শফিকও নাকি এলাকায় আসতে মানসিক ভাবে তৈরি হচ্ছে এছাড়া টেকনাফ ছাত্রদলনেতা জাহেদুল ইসলাম সহ অনেকে ইতি মধ্যে আবার এলাকায় আসতে শুরু করেছে। এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক জনপ্রতিনিধি জানান,গত কিছুদিন আগে টেকনাফ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান জাফর আলমকে এলাকায় ফিরে আনার জন্য বেশ কয়েকটি মুসজিদে দোয়া করা হয়েছে। স্বীকৃত এসব ইয়াবা গডফাদার আবার এলাকায় ফিরলে আবার ইয়াবা ব্যবসা চাঙ্গা হবে বলে মনে করছেন অনেকে। হ্নীলা এলাকা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ি মামুন জানান,পুরু ইউনিয়নে এতেদিন অন্তত ২০০ বড় ইয়াবা কারবারি এলাকা ছেড়েছিল এখন আবার অনেকে ফিরে আসছে,অনেকে স্বপরিবারে চলে গিয়েছিল ইতি মধ্যে ৫/৬টি পরিবারও ফিরে এসেছে। তারা এখন নিজেদের নির্যাতিত হিসাবে এলাকার চায়ের দোকানে বসে জোর গলায় বলছে অথচ তারা ৫ বছর আগে টমটম চালাতে এখন কোটিটাকার মালিক। এদিকে কক্সবাজার শহরতলীর দক্ষিণ মহুরীপাড়ার ইয়াবা ব্যবসায়ি কাজল দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিল তাকেও এখন এলাকা দেখা যাচ্ছে,এছাড়া সরকারি কলেজের পশ্চিমপাশে রাজু নামের একজন ইয়াবা ডিলার নতুন করে চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। এদিকে বিসিক এলাকার সব চেয়ে বড় ইয়াবাডন আবদুল খালেক এতদিন কিছুটা নিয়ন্ত্রনে থাকলেএখন আবার প্রকাশ্য এসে যাবতিয় অপরাধ কর্মকান্ড করছে। দক্ষিণ হাজী পাড়া এলাকার মহিউদ্দিন,মাহমুদুল হক সহ অনেকে আবার এলাকায় ফিরছে বলে জানা গেছে। এদিকে শহরের বিডিআর ক্যাম্প এলাকা ভেতরে বড়–য়াপাড়া টেকনাফ থেকে এসে ঘর করা ইয়াবা নিয়ে আগে জেলখাটা মুফিজ এতদিন এলাকায় কম থাকলেও এখন আবার দেখা যাচ্ছে একই সাথে সিকদার পাড়া এলাকার ইয়াবা ব্যবসায়ি ইউটুপ,আরমানদের তৎপরতা আবার বাড়ছে বলে জানান এলাকাবাসী। শহরের পাহাড়তলী,খুরুশকুল,পিএমখালী,ঝিলংজা সহ অনেক এলাকা থেকে স্থানীয় লোকজন ফোন করে ইয়াবা ব্যবসায়িরা আবার এলাকায় ফিরে আসার খবর দিচ্ছে। এ ব্যপারে কক্সবাজার আইনজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক এড,জিয়া উদ্দিন আহমদ বলেণ,২ বছর আগে আমরা যখন কোন কাজে উখিয়া টেকনাফ যেতাম তখন রাস্তায় অন্তত ৫০০ মটর সাইকেল দেখা যেত উঠতি বয়সের তরুণের হাতে। এখন সেই পরিস্থিতি নেই এখন রাস্তায় ৫০টি মটর সাইকেলও দেখা যায়না। আগে ইয়াবার টাকার গরম যেভাবে দেখাযেত এখন সেই পরিস্থিতি নাই। তবে সম্প্রতী মেজর সিনহা হত্যার ঘটনার পর থেকে টেকনাফের সাবেক ওসি প্রদীপের ব্যাপারে যে ভয়ংকর তথ্য সামনে আসছে সেটা খুবই উদ্বেগ জনক। আমরা চাই প্রকৃত মাদক ব্যবসায়িরা আইনের আওতায় আসুক কিন্তু কোন নিরিহ মানুষ যেন হয়রানী না হয়। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে অনেক নিরিহ মানুষ হয়রানীর স্বীকার হয়েছে। চলমান ঘটনার পরে পুলিশের ভুমিকা একটু কম হওয়ায় অনেক ইয়াবা কারবারীরা উৎসাহিত হতে পারে প্রশাসনকে সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখতে হবে। সুজন সহ সভাপতি অধ্যাপক অজিত দাশ বলেন,এটাও সত্য অনেকে নিরীহ মানুষ হয়রানীর স্বীকার হয়েছে তবে মাদক ব্যবসায়িরা আতংকে ছিল এটাও সত্য। সেই আতংক তাদের ভেতরে রাখতে হবে। এখন অনেকে নির্যাতনের স্বীকার হয়েছে বলে দাবী করে প্রকৃত ইয়াবা ব্যবসায়িরা আবার সমাজে প্রতিষ্টিত হতে চাইবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT