শিরোনাম :
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে চোরাই পণ্যের ব্যবসা জমজমাট কক্সবাজারের দুই পৌরসভা ও ১৪ ইউপিতে ভোট ২০ সেপ্টেম্বর রামু উপজেলা পরিষদের সৌন্দর্য্য নষ্ট করে দোকান বরাদ্ধের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ ঈদগাঁও বটতলী-ইসলামপুর বাজার সড়কের বেহাল দশা আইসক্রিম বিক্রেতা থেকে কোটিপতি রোহিঙ্গা জালাল : নেপথ্যে ইয়াবা ব্যবসা পৌর কাউন্সিলার জামশেদের স্ত্রী‘র ইন্তেকাল : সকাল ১০ টায় জানাযা উখিয়ায় বিদ্যুৎ পৃষ্টে একজনের মৃত্যু কক্সবাজারে বেড়াতে এসে অতিরিক্ত মদপানে চট্টগ্রাম ছাত্রলীগ নেতার মৃত্যু টেকনাফে নৌকা বিদ্রোহীদের জন্য কঠিন শাস্তি অপেক্ষা করছে; সাবরাং পথসভায় মেয়র মুজিব ৮ হাজার পিস ইয়াবা, যৌন উত্তেজক সিরাপ নগদ টাকা সহ আটক ১

এনজিও কর্মীর বিরুদ্ধে বিজিবির ১০০ কোটি টাকার মামলা

রির্পোটার:
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, নভেম্বর ১১, ২০২০
  • 273 বার সংবাদটি পড়া হয়েছে

কক্স৭১
কক্সবাজারে ব্লাষ্ট নামের এনজিওর এক নারী কর্মীর বিরুদ্ধে ১০০ কোটি টাকার মানহানি মামলা দায়ের করেছে বিজিবি। গতকাল মঙ্গলবার কক্সবাজারের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহর আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়।বিজিবির বিরুদ্ধে মানহানির অভিযোগে ব্লাষ্ট নামের এনজিও এর নারী কর্মী ফারজানা আকতারের (২৮) বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করা হয়। এর আগে গত ৮ অক্টোবর বিজিবির তল্লাশি ফাঁড়িতে ওই নারীকে তল্লাশি চালানো হয়। জানা গেছে, ওই ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে বিজিবি সদস্যদের বিরুদ্ধে তাকে ধর্ষণের অভিযোগ আনেন ওই নারী।আদালত আগামী ৭ কার্যদিবসের মধ্যে মামলার সাক্ষীদের জবানবন্দি নিয়ে বিস্তারিত প্রতিবেদন দাখিলে টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) নির্দেশ দিয়েছেন। বিজিবির পক্ষে মামলার বাদী হয়েছেন টেকনাফ বিজিবি-২ ব্যাটালিয়নের দমদমিয়া তল্লাশি ফাঁড়ির জেসিও নায়েব সুবেদার মোহাম্মদ আলী মোল্লা।মামলার অভিযোগে বলা হয়, বিজিবির বিরুদ্ধে ওই নারী উদ্দেশ্যপূর্ণভাবে গণধর্ষণের মতো মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়েছেন। এতে বাহিনীটির ভাবমূর্তি মারাত্মকভাবে ক্ষুণ্ণ হয়েছে। এ জন্যই বিজিবি আইনি পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছে।বাদী পক্ষে আইনজীবী অ্যাডভোকেট সাজ্জাদুল করিম ও অ্যাডভোকেট জিয়া উদ্দিন আহমদ জানান, ফারজানা আকতার কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নে এনজিও কর্মী হিসেবে কাজ করেন। গত ৮ অক্টোবর সকালে হ্নীলা থেকে ট্যাক্সিতে চড়ে টেকনাফ উপজেলা সদরে যাচ্ছিলেন। এ সময় কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়কের দমদমিয়া বিজিবি তল্লাশি ফাঁড়িতে সিএনজিটি থামানো হয়।পাঁচজন যাত্রীর মধ্যে অপর চার জন ট্যাক্সি থেকে নেমে আসেন। কিন্তু ওই নারী নিজেকে ব্লাষ্ট এনজিওর কর্মী পরিচয় দিয়ে তল্লাশি এড়ানোর চেষ্টা করেন। পরে বিজিবির নারী সদস্যরা তাকে সিএনজি থেকে নামিয়ে তল্লাশি করেন। এতে ফারজানা আকতার বিজিবির ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে গণধর্ষণের অভিযোগ তোলেন।বাদীপক্ষের আইনজীবীরা জানান, তল্লাশি ফাঁড়িতে সিসি ক্যামেরার যাবতীয় ফুটেজেও এ অভিযোগের সত্যতা মেলেনি। এমনকি টেকনাফ থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মেডিক্যাল সনদ নিয়ে আসার কথা জানায়। পরে ওই নারী কক্সবাজার সদর হাসপাতালে যান।হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক শাহীন আবদুর রহমানের নেতৃত্বে গঠিত মেডিক্যাল বোর্ড তাকে পরীক্ষা করেন। চিকিৎসকরা জানান, পরীক্ষা করে ধর্ষণের আলামত পাওয়া যায়নি মর্মে সনদ প্রদান করা হয়েছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

এই বিষয়ে আরো সংবাদ দেখুন
© All rights reserved © 2021 cox71.com
Developed by WebArt IT